০৬ জুলাই ২০২২, ২২ আষাঢ় ১৪২৯, ৬ জিলহজ ১৪৪৩
`

নির্বাচনে কে এলো না এলো সেটা বিবেচ্য বিষয় নয় : নির্বাচন কমিশনার


নির্বাচন কমিশনার মো: আনিছুর রহমান বলেছেন, নির্বাচনে কে এলো, কে এলো না সেটা আমাদের কাছে প্রধান বিবেচ্য বিষয় নয়। কেউ যদি না আসে তার জন্য নির্বাচন বন্ধ থাকবে না।

শুক্রবার দুপুরে জেলা প্রশাসন ও জেলা নির্বাচন অফিসের আয়োজনে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রম উদ্বোধন ও স্মার্ট কার্ড বিতরণ শেষে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, আমরা চাই সব দল নির্বাচনে অংশগ্রহণ করুক। নির্বাচন বন্ধ থাকলে গণতন্ত্র বিপন্ন হবে। আগামী জাতীয় নির্বাচন হবে অবাধ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ। আমাদের সেই প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে। আমরা চাই জনগণের অধিকার জনগণ প্রতিষ্ঠা করবে। আমার ভোট আমি দেব যাকে খুশি তাকে দেব। এমন একটা ¯স্লোগান এক সময় চলছিল, আমরা সেই যায়গায় আবার ফিরে যেতে চাই। আমরা সেভাবেই প্রস্তুতি নিচ্ছি।

তিনি আরো বলেন, নিবন্ধিত ৩৯টি রাজনৈতিক দল আছে আমরা তাদের প্রত্যেকের সাথে কথা বলব। একাধিকবার আমন্ত্রণ জানাবো। তারা আসবে কি আসবে না তা বলা মুশকিল। রাজনীতিতে শেষ বলে কিছু নেই। পরিস্থিতি কখন কি হয় কেউ বলতে পারে না। তবে প্রত্যেকের সমস্যাগুলো শুনব, সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করব। আমরা আমাদের প্রচেষ্টা চালিয়ে যাব। কেউ যদি না আসে তার জন্য নির্বাচন বন্ধ থাকবে না। নির্বাচন বন্ধ থকলে গণতন্ত্র বিপন্ন হবে।

ইভিএম এ নির্বাচন আগামী জাতীয় নির্বাচন বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ৩০০ আসনে নির্বাচন ইভিএমে করার মতো এখনো প্রস্তুতি বা সামর্থ আমাদের নেই। আমরা পরীক্ষা নিরিক্ষা করে দেখছি ইভিএম নিয়ে পক্ষে-বিপক্ষে বিভিন্ন রকমের কথা আছে। এগুলো আমরা সমাধানের চেষ্টা করছি।

অনুষ্ঠানে শরীয়তপুর জেলা প্রশাসক মো: পারভেজ হাসানের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন ফরিদপুর অঞ্চলের আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা (যুগ্ম-সচিব) মোস্তফা ফারুক, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের প্রশাসক ছাবেদুর রহমান খোকা সিকদার, পুলিশ সুপার এস এম আশরাফুজ্জামান, জেলা পরিষদের সচিব শামীম হোসেন, শরীয়তপুর পৌরসভার মেয়র পারভেজ রহমান জন প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ছাবেদুর রহমান খোকা সিকদারের হাতে স্মার্ট কার্ড তুলে দেন এবং ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রমের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়।


আরো সংবাদ


premium cement