২২ মে ২০২২
`

ইউএনওর মোবাইল নম্বর ক্লোন করে চাঁদা দাবি

ইউএনওর মোবাইল নম্বর ক্লোন করে চাঁদা দাবি - ছবি : সংগৃহীত

গাজীপুরের কালীগঞ্জ উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) সরকারি মোবাইল নম্বর ক্লোন করে স্থানীয় ব্যবসায়ীদের কাছে চাঁদা দাবি করেছে একটি প্রতারক চক্র।

রোববার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আসসাদিকজামান।

স্থানীয় একাধিক ব্যবসায়ী জানান, গত কয়েক দিন ধরে কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সরকারি মোবাইল নম্বর থেকে স্থানীয় বিভিন্নজনের কাছে ফোন করে চাঁদা দাবি করা হচ্ছিল। শনিবার বিকেলে ওই মোবাইল নম্বর থেকে স্থানীয় দোলান বাজার বণিক সমিতির সভাপতি ও জামালপুর ইউপি সদস্য মান্নান মোল্লার কাছে ফোন আসে। ফোনের অপর প্রান্ত থেকে নিজেকে কালীগঞ্জের ইউএনও পরিচয় দিয়ে মিষ্টি কেনার কথা বলে মান্নান মোল্লার কাছ থেকে কয়েকজন ব্যবসায়ী ও স্থানীয় ২নং ওয়ার্ডের গ্রাম পুলিশ আজিম উদ্দিনের মোবাইল নম্বর সংগ্রহ করেন। পরে ওই ব্যক্তি আজিম উদ্দিনকে ফোন দিয়ে তার কাছ থেকেও ছয়জন ব্যবসায়ীর মোবাইল নম্বর নেন।

এরপর ওই ব্যবসায়ীদের মোবাইলে ফোন করে প্রতারক নিজেকে কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে পরিচয় দেন। এ সময় তিনি মিষ্টির দোকানে ভেজাল বিরোধী অভিযান পরিচালনা করার ভয় দেখিয়ে প্রতি দোকানে ৫০ হাজার করে টাকা চাঁদা দাবি করেন। চাঁদার টাকা দেয়া না হলে অভিযান চলবে বলে হুমকি প্রদান করা হয়। বিষয়টি সন্দেহজনক মনে হলে ব্যবসায়ীরা ঘটনাটি স্থানীয় ইউপি চেয়াম্যানকে অবহিত করেন। পরে জামালপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান খাইরুল আলম তাৎক্ষণিকভাবে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে অবহিত করলে এটি একটি প্রতারক চক্রের কাজ বলে জানা যায়।

এ ব্যাপারে কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. আসসাদিকজামান বলেন, আমার সরকারি মোবাইল নম্বর ক্লোন করে একটি প্রতারক চক্র জামালপুর ইউনিয়নের কয়েকজন ব্যবসায়ীর মোবাইলে ফোন করে টাকা দাবি করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ বিষয়ে সকল দফাদার, মহল্লাদার, ওয়ার্ড মেম্বার এবং চেয়ারম্যানকে সতর্ক থাকার অনুরোধ করছি। প্রতারক চক্রের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


আরো সংবাদ


premium cement