২৩ জানুয়ারি ২০২২, ০৯ মাঘ ১৪২৮, ১৯ জমাদিউস সানি ১৪৪৩
`

শত্রুতার বিষে মরল শখের হাঁস

মারা যাওয়া হাঁসের একাংশ - ছবি : নয়া দিগন্ত

ঢাকার শিল্পাঞ্চল আশুলিয়ায় পূর্ব শত্রুতার জেরে বিষ প্রয়োগ করে দেশি ও বিদেশি প্রজাতির প্রায় ২৫০টি হাস মেরে ফেলার অভিযোগ উঠেছে প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে।

জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরেই হাসগুলোকে মেরে ফেলা হয়েছে বলে অভিযোগ খামারির।

মারধর করা হয়েছে খামারের ম্যানেজারকেও। এতে তার চার লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি করেন খামারি।

বৃহস্পতিবার দুপুরে আশুলিয়ার দরগারপাড় এলাকায় রাশেদ ভূইয়ার খামারে এ ঘটনা ঘটে।

খামারের মালিক রাশেদ ভূইয়া জানান, তার চাচাতো ভাইয়ের লিজ নেয়া জায়গায় এক বছর আগে শখ করে হাঁসের খামার গড়ে তুলেন তিনি। দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে বিদেশি প্রজাতির ১০০টি বেলজিয়াম ও ১৫০টি খাকি ক্যাম্বেল প্রজাতির হাঁসের বাচ্চা সংগ্রহ করে খামার করেন। হাসগুলো দেখাশুনা করার জন্য একজন ম্যানেজারও রাখেন।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ম্যানেজার তাকে ফোন করে জানায় জাহাঙ্গীর, ফারুক ও বশিরসহ অজ্ঞাতনামা দুই তিনজন মিলে তার কাছে শেডের চাবি চায়। চাবি না দিলে তাকে মারধর করার একপর্যায়ে জীবন রক্ষার্থে সে পালিয়ে যায়। কিছুক্ষণ পরে এসে দেখেন হাঁসগুলো লাফিয়ে লাফিয়ে মারা যাচ্ছে।

তিনি বলেন, দীর্ঘ দিন ধরেই জাহাঙ্গীরের সাথে জমি নিয়ে তার বিরোধ চলে আসছে। গতকালকেও জাহাঙ্গীর খামারে দুইটা লোক পাঠিয়ে ১০টা হাস চেয়েছিল খাওয়ার জন্য। এতে রাজি না হওয়ায় হুমকি দিয়ে যায়। আমি জিডিও করেছিলাম। এরই জেরে তার হাসগুলো মেরে ফেলা হয়েছে।

আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আসওয়াদুর রহমান বলেন, রাশেদ ভূইয়া নামে এক ব্যক্তি তাকে হুমকি দেয়ার ঘটনায় জিডি করেছেন। তবে আজ হাঁস মারা যাওয়ার বিষয়টি আমার জানা নেই। এ বিষয়ে অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সাভার উপজেলা প্রানী সম্পদ কর্মকর্তা সাজেদুল ইসলাম বলেন, ভুক্তভোগী থানায় অভিযোগ করার পর বিষয়টি আমরা দেখবো। পরে পুলিশের মাধ্যমে মরে যাওয়া হাঁস ফরেনসিতে পাঠানো হবে। পরবর্তীতে এ বিষয়ে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


আরো সংবাদ


premium cement