০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ২০ অগ্রহায়ন ১৪২৮, ২৯ রবিউস সানি ১৪৪৩ হিজরি
`
৫৭ যুবক লিবিয়ায় বন্দী

‘চাই না কামাই, তবু সন্তান আমার বুকে ফিরা আসুক’

লিবিয়ায় বন্দী-গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া-মাদারীপুর সদর
লিবিয়া থেকে ইতালি যাওয়ার বিপজ্জনক রুট - ছবি : সংগৃহীত

মাদারীপুর সদর, রাজৈর উপজেলা ও গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলার ৫৭ জন যুবক লিবিয়ায় বন্দী জীবনযাপন করছেন। তাদের দেশে ফিরিয়ে আনার দাবিতে বৃহস্পতিবার বিকেলে মাদারীপুর সরকারী কলেজ মাঠে মানববন্ধন করেছেন পরিবারের সদস্যরা।

জানা গেছে, এই ৫৭ জন যুবকের মধ্যে কেউ ছয় মাস, কেউ নয় মাস ধরে লিবিয়ার বিভিন্ন কারাগারে আটক রয়েছেন। জেলখানায় তাদের তিন বেলা খাবারের জায়গায় কোনো দিন এক বেলাও খাবার দেয়া হয় না।

পরিবারের সদস্যরা লিবিয়ায় বন্দী এসব ভুক্তভোগীকে দ্রুত দেশে ফিরিয়ে আনার জন্য সরকারের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

লিবিয়ার জেলে বন্দী মাদারীপুর নয়াচর এলাকার আবদুল আজিম মাতুব্বরের বাবা মোসলে উদ্দীন মাতুব্বর বলেন, আমার ছেলের সাথে কথা হইছে কয়েকদিন আগে। ছেলে বলে, ‘আব্বা খিদার যন্ত্রণায় দাঁড়াইতে পারি না, দাঁড়াইলে পইড়া যাই। টাকা দিছি দালালরে তাও ছাড়ে না।’

তিনি বলেন, ‘চাই না কামাই, তবুও আমার সন্তান আমার বুকে ফিরা আসুক। ছয় মাস আগে দালালের মাধ্যমে ছেলেরে লিবিয়া পাঠাইছি। পর পর তিনবার প্রতারণা করছে, আমার সাড়ে ১৫ লাখ টাকা চইলা গেছে। দুইবার ছাড়াইছি এই বার জাহারা জেলে আছে। কোনোভাবেই ছাড়াইতে পারতাছি না। ১ বেলা খাওন দেয় আর হাফ লিটার পানি দেয়, তাও একটা রুটি। টাকা দেই তাও ছাড়তাছে না। প্রধানমন্ত্রীর কাছে আবেদন, এসব ছেলে বাইর থেকে রেমিট্যান্স পাঠাইলে দেশেরই উন্নতি হইত। যেভাবেই গেছে এখন তাদের জীবন বাঁচান।’

লিবিয়ায় বন্দী আরেক যুবকের ভাই সেলিম শেখ বলেন, সাড়ে চার লাখ টাকা দিয়া ভাইরে পাঠাইছি। ওইখানে যাইয়া জেলে রাখছে। ছাইড়া দিব কইয়া এখনো ছাড়ে নাই, খাওন লওন দেয় না। আমি আমার ভাইরে ফেরত চাই।

প্রসঙ্গত, লিবিয়া থেকে অবৈধভাবে সমুদ্র পথে ট্রলারযোগে ইতালি যাওয়ার পথে তিউনিশিয়ার ভূমধ্যসাগরে ট্রলারডুবিতে মাদারীপুর সদর উপজেলার পশ্চিম খাগদী গ্রামের সাব্বির খান (২০) ও বড়াইলবাড়ী গ্রামের সাকিব তালুকদার (২১) শনিবার মারা যান। তাদের মারা যাওয়ার খবর বাড়িতে পৌঁছলে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন স্বজনরা।



আরো সংবাদ


দৈনিক নয়া দিগন্ত সাংবাদিক এরশাদ আলীর শাশুড়ির ইন্তেকাল চিলিতে করোনার ‘ওমিক্রন’ ধরন শনাক্ত মালয়েশিয়ায় নতুন করে ৪ হাজার ৮৯৬ জন করোনায় আক্রান্ত চাকরির পেছনে না ছুটে উদ্যোক্তা হবার পরামর্শ প্রধানমন্ত্রীর খালেদা জিয়াকে হত্যার ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে দেশের অস্তিত্ব বিলুপ্তির চেষ্টা হচ্ছে : ফখরুল শহীদ সোহরাওয়ার্দী গণতন্ত্রের অভিযাত্রায় অনুপ্রেরণার উৎস হয়ে থাকবেন : কাদের ১১ ডিসেম্বর থেকে সব সিটিতে হাফ ভাড়া কনডেম সেলের আসামিদের তথ্য দাখিল না করায় হাইকোর্টের অসন্তোষ ইরানের আকাশ প্রতিরক্ষা ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষামূলক উৎক্ষেপণ জাতীয় এসএমই পণ্য মেলা উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী নাগাল্যান্ডে নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে নিহত ১২ গ্রামবাসী

সকল

ইসরাইলকে ইরানে গোয়েন্দা অভিযান চালাতে নিষেধ করল যুক্তরাষ্ট্র (১৪২৯২)‘ওমিক্রন’ থেকে বাঁচাতে স্ত্রী ও দুই সন্তানকে হত্যা করলেন চিকিৎসক (১১০২৯)ইরান ইস্যুতে আমেরিকা একঘরে হয়ে পড়েছে : ব্লিঙ্কেনের স্বীকারোক্তি (১০২১৩)এরদোগানকে হত্যার চেষ্টা! (৮০৯০)রুশ অস্ত্র কিনলে নিষেধাজ্ঞা, ভারতকে বার্তা যুক্তরাষ্ট্রের (৭৯১৫)বাংলাদেশ ভারতের পক্ষে যাবে না (৭৮৩৪)পাকিস্তানের বিরুদ্ধে হেরেও খুশি পাপন (৭২৬৯)যুক্তরাষ্ট্রকে রাশিয়ার হুঁশিয়ারি : প্রতিবেশীর ঘরে অস্ত্র ঢোকালে যুদ্ধ বাধবে (৬৫০৭)‘বুথে নয়, নৌকার ভোট হবে টেবিলের উপরে, পুলিশ প্রশাসনকে সেভাবেই দেখবো’ (৬০০১)জ্বর নেই, স্বাদ-গন্ধও ঠিক আছে! ওমিক্রন চেনার সহজ উপায় (৫৮২৬)