১৬ অক্টোবর ২০২১, ৩১ আশ্বিন ১৪২৮, ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিজরি
`

পদ্মার গর্ভে ৮ বাড়িসহ বিস্তীর্ণ এলাকা বিলীন, আতঙ্কে শতাধিক পরিবার


মুন্সীগঞ্জে পদ্মার ভাঙনে বিস্তীর্ণ এলাকাসহ আটটি বসতঘর নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। ভাঙন আতঙ্কে রয়েছে পদ্মা তীরের আরো শতাধিক পরিবার। মুন্সীগঞ্জের টঙ্গীবাড়ী উপজেলার হাসাইল-সংলগ্ন পদ্মা নদীতে তীব্র স্রোতে হঠাৎ ভাঙন দেখা দিয়েছে।

শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে ভাঙন শুরু হলে নদী-সংলগ্ন কয়েক শ’ মিটার এলাকার জমি ও আটটি বসতঘর নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যায়। ভাঙনের মুখে রয়েছে ওই এলাকার আরো শতাধিক ঘরবাড়িসহ মসজিদ, কবরস্থান ও প্রাথমিক বিদ্যালয়। ভাঙনরোধে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানিয়েছে এলাকাবাসী।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বেলা ১১টার দিকে পদ্মা নদীতে তীব্র স্রোতে কয়েক ঘণ্টায় ভাঙন কয়েক শ’ মিটার এলাকার সবকিছু বিলীন হয়ে গেছে। এতে একে একে বিলীন হয়ে যায় স্থানীয় চারটি পরিবারের আটটি বসতঘর। ক্ষতিগ্রস্তদের মধ্যে স্থানীয় আলম শেখের তিনটি, জিয়াসমিন বেগমের একটি, খোরশেদের দু’টি ও নুর মোহাম্মদ দেওয়ানের দু’টি ঘর নদীগর্ভে বিলীন হয়েছে।

টংগীবাড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাহিদা পারভীন জানান, নদীভাঙন কবলিত পরিবারগুলোকে সরিয়ে নেয়া হয়েছে। ক্ষতিগস্ত পরিবারগুলোর জন্য ত্রাণের ব্যবস্থা করা হয়েছে। পানি উন্নয়ন বোর্ডের সদস্যরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। পরবর্তী পদক্ষেপ নেয়া হবে, যাতে আর কোনো পরিবার নদীভাঙনে ক্ষতিগ্রস্ত না হয়।



আরো সংবাদ