৩০ জুলাই ২০২১
`

পরকীয়া নাকি সম্পত্তির বিরোধ, কী কারণে সবাইকে শেষ করতে চেয়েছিলেন মেহজাবিন

পরকীয়া নাকি সম্পত্তির বিরোধ, কী কারণে সবাইকে শেষ করতে চেয়েছিলেন মেহজাবিন -

রাজধানীর কদমতলীর মুরাদপুর এলাকার হামিদা পাম্পের পাশের গলির একটি বাড়ি থেকে একই পরিবারের তিনজনের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার সকালে লাশগুলো উদ্ধার করা হয়। কদমতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর জামাল উদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ওসি জানান, শনিবার সকালে লাশগুলো উদ্ধার করা হয়েছে। নিহতরা হলেন মাসুদ রানা (৫০), তার স্ত্রী মৌসুমী ইসলাম (৪০) ও মেয়ে জান্নাতুল (২০)।

এ ঘটনায় একজনকে আটক করেছে পুলিশ। আটক হওয়া মেহজাবিন মুন নিহত দম্পতির সন্তান বলে জানা গেছে।

এছাড়া, এ ঘটনায় আহত অবস্থায় মেহজাবিনের স্বামী শফিকুল ইসলাম ও তার আগের ঘরের মেয়ে মারজান তাবাসসুম তৃপ্তিয়াকে (৬) ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

জানা যায়, গত দুদিন আগে স্বামী-সন্তানকে নিয়ে মায়ের বাড়িতে বেড়াতে আসেন মেহজাবিন। এসেই তার ছোট বোনের জান্নাতুলের সাথে তার স্বামীর পরকীয়া রয়েছে বলে বাবা-মাকে অভিযোগ করেন। এ নিয়ে অনেক কথা কাটাকাটি হয়। তার জেরেই হয়তো তিনি এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে।

এছাড়া প্রতিবেশীরা জানিয়েছেন, জায়গা সম্পত্তি নিয়েও পরিবারের সাথে বিরোধ ছিল মেহজাবিনের। সম্পত্তি লিখে দেয়ার জন্য বাবা-মাকে অনেক চাপ দিতেন। এ নিয়ে এর আগে বৈঠক শালিস হয়েছে।

গুরুতর অসুস্থ অভিযুক্তের স্বামী শফিকুল ইসলাম অরণ্য জানান, মেহজাবিন উচ্ছৃঙ্খল জীবনযাপন করছিলেন। পরিবারের সাথে নানা কলহে জড়াতেন। এমনকি স্বামী অরণ্যের সাথেও দ্বন্দ্বে লিপ্ত হতেন।



আরো সংবাদ