১৬ জুন ২০২১
`

সিরাজগঞ্জে দিশারী সঙ্ঘের ঈদসামগ্রী বিতরণ

সিরাজগঞ্জে দিশারী সঙ্ঘের ঈদসামগ্রী বিতরণ - ছবি- নয়া দিগন্ত

মুসলিমদের অন্যতম বড় উৎসব পবিত্র ঈদুল ফিতর। এক মাস সিয়াম সাধনার পর ঈদুল ফিতর উদযান করেন বিশ্বের ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা। তবে গতবারের মতো এবারো ঈদ এসেছে করোনাভাইরাস মহামারীর মধ্যে। এতে ঈদের আনন্দ অনেকটা ম্লান হয়ে যাচ্ছে। বিশেষ করে নিম্ন ও নিম্নমধ্যবিত্ত পরিবারের মানুষ কর্মহীন হয়ে অভাবে খেয়ে না খেয়ে দিন কাটাচ্ছে। এমন বাস্তবতায় সিরাজগঞ্জের সলঙ্গা থানার কয়েকটি গ্রামের বিধবা ও শ্রমজীবী ২০০ মানুষের ঘরে ঈদসামগ্রী পৌঁছে দিয়েছেন একদল ছাত্র-যুবক। পরিচিত মহলের সহায়তায় ও নিজেদের পকেট থেকে টাকা সংগ্রহ করে ঈদসামগ্রীর প্যাকেট পৌঁছে দিয়েছেন তারা।

প্রতিটি প্যাকেটে ছিল এক কেজি চিনি, এক কেজি পোলাও চাল, এক প্যাকেট লাচ্চা সেমাই, কিসমিস, এক কেজি লবনসহ আরো কিছু নিত্যপণ্য।

দিশারী সঙ্ঘ নামক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের ব্যানারে মঙ্গলবার সলঙ্গার সলঙ্গা কলেজপাড়া, বাসুদেবকোল, কুতুবের চর, দশানীপাড়া, শ্রীরামের, বুধারচর, জঞ্জালীপাড়া, উত্তরপাড়া ভরমোহনী, ঘুড়কা, চকগোবিন্দপুর ও দেওভোগ গ্রামে এসব ঈদসামগ্রী পৌঁছে দেয়া হয়।

দিশারী সঙ্ঘের উপদেষ্টা সাংবাদিক কাওসার আজম ও সঙ্ঘের চেয়ারম্যান আল আমিন সরকারের ব্যবস্থাপনায় সংগঠনের ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট শহিদুল ইসলাম, মো: আলহাজ উদ্দিন, মো: ইসরাফিল হোসেন, সবুজ রিপন, সৌরভ, আবু বকর, রাব্বী, রাকিবসহ অনেকে এই স্বেচ্ছাসেবার কাজে নিয়োজিত ছিলেন। তারা বৃষ্টি উপেক্ষা করে গ্রামে মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়ে এ ঈদসামগ্রী পৌঁছে দেন।

সঙ্ঘের চেয়ারম্যান আল আমিন সরকার বলেন, যাদেরকে এ সহযোগিতা দেয়া হয়েছে তাদের অনেকেই কখনো মানুষের কাছে হাত পাতেন না। সরকারি ত্রাণ পান না বা চান না। তাই অনেকটা গোপনেই তালিকা ধরে ধরে তাদের ঘরে ঘরে গিয়ে ঈদসামগ্রী পৌঁছে দেয়া হয়েছে।



আরো সংবাদ