০৮ মে ২০২১
`

‘শিশুবক্তা’ মাদানিকে কাশিমপুর কারাগারে স্থানান্তর

‘শিশুবক্তা’ মাদানিকে কাশিমপুর কারাগারে স্থানান্তর - ফাইল ছবি

আলোচিত ‘শিশুবক্তা’ রফিকুল ইসলাম মাদানিকে গাজীপুর জেলা কারাগার থেকে কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার-২-এ পাঠানো হয়েছে। শনিবার র‌্যাব ও পুলিশের কড়া প্রহরায় তাকে কেন্দ্রীয় কারাগারে স্থানান্তর করা হয়। গাজীপুর জেলা কারাগারের সুপার বজলুর রশিদ আখন্দ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

কারা সূত্র জানায়, শনিবার সকাল সোয়া নয়টার দিকে ‘শিশুবক্তা’ রফিকুল ইসলাম মাদানিকে জেলা কারাগার থেকে কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার-২-এ পাঠানো হয়। পরে সকাল ১০টার দিকে তাকে নিয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগারে পৌঁছায়। এ সময়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পোশাকধারী সদস্যদের পাশাপশি বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার নজরদারি ছিল বলে কারা সূত্রে জানা গেছে।

বুধবার ভোররাতে রফিকুল ইসলাম মাদানিকে (২৬) নেত্রকোনা জেলার পূর্বধলা থানার লেটিরকান্দা এলাকার নিজ বাড়ি থেকে আটক করে র‌্যাব-১-এর সদস্যরা। ওই দিন রাতেই গাজীপুর মহানগরীর গাছা থানায় তাকে হস্তান্তর করা হয়। তার বিরুদ্ধে ওই থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে বৃহস্পতিবার একটি মামলা দায়ের করা হয়।

মামলায় উল্লেখ করা হয়, রাষ্ট্র তথা সরকারবিরোধী, আইনশৃঙ্খলা পরিপন্থী উস্কানি ও বিদ্বেষমূলক বক্তব্য ডিজিটাল মাধ্যমে প্রদান করেন রফিকুল ইসলাম মাদানি। যা তার নির্দেশে ইউটিউবসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ পায়।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের উপকমিশনার মোহাম্মদ ইলতুৎমিশ জানান, বৃহস্পতিবার সকালে র‌্যাব-১-এর ডিএডি মো: আব্দুল খালেক গাছা থানায় রফিকুল ইসলাম মাদানির বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের করেন। তাকে এ মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।
গ্রেফতার রফিকুল ইসলাম মাদানিকে বৃহস্পতিবার গাজীপুরে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো: শরিফুল ইসলামের আদালতে হাজির করা হলে আদালত শুনানি শেষে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। জেলা কারাগারে দু’দিন থাকার পর শনিবার তাকে কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগারে স্থানান্তর করা হয়।

জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদালতে রফিকুল ইসলাম মাদানির রিমান্ড চাওয়া হবে বলে জানিয়েছেন পুলিশ কর্মকর্তা মোহাম্মদ ইলতুৎমিশ।



আরো সংবাদ