০৮ মে ২০২১
`

টঙ্গীতে লিফটের নিচে মিলল ব্যবসায়ীর লাশ

-

গাজীপুর মহানগরের টঙ্গীর গাজীপুরায় আটতলা বাড়ির লিফটের নিচ থেকে শনিবার বিকেলে এক ব্যবসায়ীর অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহতের নাম আব্দুল হালিম (৪৫)। তিনি গার্মেন্টের বাতিল মালের ব্যবসা করতেন।

আব্দুল হালিম বগুড়া জেলার শিবগঞ্জ থানার চাপাচিল গ্রামের মৃত মিমির আলীর ছেলে। তিনি টঙ্গীর পশ্চিম গাজীপুরার তোতা মিয়ার বাড়িতে সপরিবারে ভাড়া থাকতেন।

বাড়ির মালিক সফিকুল ইসলাম জানান, লিফটের নিচ থেকে দুর্গন্ধ আসছে বলে একজন দারোয়ান গত শুক্রবার রাতে তাকে জানায়। শনিবার সকাল ১০টায় তাকে আবারো দুর্গন্ধের কথা জানানো হলে তিনি লিফট খুলে দেখতে বলেন। দারোয়ান লিফট খুলে নিচে অর্ধগলিত লাশ দেখতে পেয়ে তাকে খবর দেন। পরে তিনি স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলরকে বিষয়টি অবহিত করেন। কাউন্সিলর আবু বকর সিদ্দিক ঘটনাস্থলে গিয়ে থানায় খবর দেন। পুলিশ শনিবার বিকেলে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

এদিকে নিহতের পরিচয় শনাক্ত করে ওই বাড়ির ষষ্ঠতলার একটি ফ্ল্যাটের ভাড়াটিয়া বিলকিস বেগম জানান, নিহত আব্দুল হালিম তার বড় ভাই। তার স্বামী আব্দুল জলিল গত ২ এপ্রিল মারা যাওয়ার পর থেকে তাকে দেখাশোনা করার জন্য আব্দুল হালিম নিয়মিত এই বাড়িতে আসতেন। সর্বশেষ গত ৭ এপ্রিল সকালে তাকে দেখে চলে যাওয়ার পর আব্দুল হালিম নিখোঁজ হন। তার সন্ধান না পেয়ে অবশেষে ওই দিন রাতে থানায় সাধারন ডায়েরি করা হয়।

নিহতের স্ত্রী লায়লা বেগম জানান, কে বা কারা এবং কী কারণে তাকে হত্যা করেছে এ ব্যাপারে তারা কিছু বলতে পারছেন না।

লাশের সুরতহাল রিপোর্ট প্রস্তুতকারী টঙ্গী পশ্চিম থানার এসআই কায়সার জানান, অর্ধগলিত লাশের একটি পা ভাঙ্গা পাওয়া গেছে। লাশটি ফুলে পঁচে যাওয়ায় আর কোনো আঘাতের চিহ্ন আছে কিনা তা বুঝা যায়নি। কেউ তাকে হত্যা করে লাশ গুমের উদ্দেশ্যে লিফটের নিচে ফেলে রেখেছে, নাকি নিছক দুর্ঘটনাবশত এঘটনা ঘটছে তা এই মুহূর্তে বলা যাচ্ছে না।

এ ব্যাপারে টঙ্গী পশ্চিম থানার অফিসার ইনচার্জ মো: শাহ আলম বলেন, এটি হত্যাকাণ্ড নাকি নিছক দুর্ঘটনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ইতিমধ্যে ওই বাড়ির দুজন দারোয়ানসহ ১৬ জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। এ ব্যাপারে মামলার প্রক্রিয়া চলছে।



আরো সংবাদ