০২ মার্চ ২০২১
`

পাংশায় নৌকার গলার কাঁটা জগ, ফুরফুরে মেজাজে ধানের শীষের প্রার্থী

মো: ওয়াজেদ আলী মন্ডল, মো: ফজলুল হক ফরহাদ ও রইচ উদ্দিন খান - ছবি : সংগৃহীত

সারা দেশে পৌর নির্বাচনের তৃতীয় ধাপে আগামী ৩০ জানুয়ারি রাজবাড়ীর পাংশা পৌরসভায় ভোট গ্রহণ হবে। এটা পাংশা পৌরসভার পঞ্চম নির্বাচন। নির্বাচনের দিন যতই ঘনিয়ে আসছে প্রার্থীদের প্রচার-প্রচারণা ততই তুঙ্গে উঠছে।

পাংশা পৌরসভার নির্বাচনে মেয়র পদে তিনজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এর মধ্যে বিএনপি মনোনীত সাবেক পৌর কমিশনার রইচ উদ্দিন খান (ধানের শীষ), আওয়ামী লীগ মনোনীত (নৌকা) প্রার্থী সাবেক মেয়র মো: ওয়াজেদ আলী মন্ডল এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের আহ্বায়ক মো: ফজলুল হক ফরহাদ (জগ) প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

এছাড়া সংরক্ষিত ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ১১ জন ও সাধারণ ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদে ৪২ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

পাংশা পৌরসভার ভোটার সংখ্যা ২৪ হাজার ৩১৩ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১২ হাজার ১১৩ জন ও নারী ভোটার ১২ হাজার ২০০ জন। পুরুষের চেয়ে নারী ভোটার ৮৭ জন বেশি।

পাংশা পৌর নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত রইচ উদ্দিন ধানের শীষ প্রতীকে ফুরফুরে মেজাজে প্রচারণা চালাচ্ছেন। জয়ের বিষয়ে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, পৌর নির্বাচনে আওয়ামী লীগে বিদ্রোহী শক্তিশালী প্রার্থী থাকায় তাদের ভোট ভাগ হয়ে যাচ্ছে।

আর পাংশা পৌরসভায় বিএনপির প্রার্থী রইচ উদ্দিনের একটা ভোট ব্যাংক আছে। কারণ তিনি ইতিমধ্যে পাংশা পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের পরপর তিন বারের নির্বাচিত কমিশনার। তাই তিনি এবার মেয়র পদে বিজয়ে আশাবাদী।

এ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী জগ প্রতীকের প্রার্থী যুবলীগের আহ্বায়ক ফজলুল হক ফরহাদ ও নৌকা প্রতীকের প্রার্থী সাবেক মেয়র ওয়াজেদ মন্ডলের মধ্যে তুমুল লড়াই হবে বলে পৌর এলাকার ভোটারদের অভিমত। ইতিমধ্যে এই দুই প্রার্থী একে অপরকে নির্বাচনী আচরণবিধি ভঙের দোষারোপ নির্বাচন কমিশনে অভিযোগও করেছেন।

গত বুধবার যুবলীগ বিদ্রোহী প্রার্থী ফজলুল হক ফরহাদকে বহিষ্কার করেছে জেলা কমিটি। এতে তার প্রচারণায় নতুন মাত্রা যোগ হয়ে ভোট প্রার্থনার গতি আরো বেড়েছে। আর এর ফলে পাংশায় নৌকার গলার কাঁটা হয়েছে জগ মার্কা।

পৌরসভার বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষের সাথে কথা বলে জানা গেছে, এবারে পাংশা পৌরসভা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও দুইবার নির্বাচিত সাবেক মেয়র ওয়াজেদ আলী নৌকা প্রতীক পেয়েছেন। এলাকায় তার জনপ্রিয়তা রয়েছে। তার সহোদর ফরিদ হোসেন ওদুত মন্ডল পাংশা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান। ওয়াজেদ মন্ডলের বৃহৎ পরিবারের সবাই পৌর এলাকায় প্রতিষ্ঠিত।

বৃহস্পতিবার পাংশা বড় বজার, বিষ্ণুপুর, মৈশালা বাজার ও সরদার বাসস্ট্যান্ড এলাকায় গণসংযোগ ও উঠান বৈঠকে ভোটের প্রচারণা শেষে নৌকার প্রার্থী সাবেক মেয়র ওযাজেদ আলী মন্ডল সাংবাদিকদের জানান, পাংশায় নৌকা প্রতীক বিজয়ের ব্যাপারে আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গ সংগঠনসমূহের নেতাকর্মীরা ঐক্যবদ্ধ। নৌকার পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে।

তিনি নৌকার বিজয়ে শত ভাগ আশাবাদী।

অপরদিকে পাংশা পৌরসভার জগ প্রতীকের প্রার্থী ফজলুল হক ফরহাদ তরুণ ও নতুন ভোটারদের মাঝে আলোড়ন সৃষ্টি করেছেন। ফজলুল হক ছাত্রজীবন থেকেই আওয়ামী ছাত্রলীগের সাথে জড়িত ছিলেন। পাংশা বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ও পৌর ছাত্রলীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেছেন। এখন কর্মজীবনে তিনি একজন ব্যবসায়ী।

ফজলুল হক সাংবাদিকদের জানান, দীর্ঘ ২২ বছরের আওয়ামী রাজনৈতিক জীবনে তার নামে কোনো মামলা হয়নি। তিনি সব সময় নির্ভেজাল ও স্বচ্ছ রাজনৈতিক ধারায় বিশ্বাসী।



আরো সংবাদ


বিদ্যুৎক্ষেত্রে চীনের হানায় অন্ধকার হয়ে গিয়েছিল মুম্বাই! বিজেপিতে যোগ দিলেন শ্রাবন্তী যেকোনো সংকটে দেশের মানুষ ঢাবির দিকে তাকিয়ে থাকে : নুর ২০২১ সালের পঞ্চম শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের প্রস্তুতি : পর্বসংখ্যা-৩ বিজ্ঞান প্রথম অধ্যায় : আমাদের পরিবেশ বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয় প্রথম অধ্যায় : আমাদের মুক্তিযুদ্ধ ২০২১ সালের অষ্টম শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের প্রস্তুতি : পর্বসংখ্যা-৩ এইচএসসি পরীক্ষার প্রস্তুতি : বাংলা প্রথম পত্র গল্প : অপরিচিতা এসএসসি পরীক্ষার লেখাপড়া : রসায়ন একাদশ অধ্যায় : খনিজ সম্পদÑ জীবাশ্ম আজ তৃতীয় দফা করোনা টেস্ট অ্যাতলেটিকো ও লিভারপুলের জয় বসুন্ধরা কিংসের খেলা মালদ্বীপে

সকল