১৯ জানুয়ারি ২০২১
`

শ্রীপুরে মানসিক ভারসাম্যহীন ছেলের হাতে মা খুন

এলাকাবাসী ইয়াসিন আরাফাতকে আটক করে। - ছবি : নয়া দিগন্ত

গাজীপুরের শ্রীপুরে মানসিক ভারসাম্যহীন ছেলের হাতে খুন হয়েছেন তার মা। বুধবার সকালে ইয়াসিন আরাফাত (১৬) নামে ওই সন্তান তার মাকে কুপিয়ে খুন করে। এ ঘটনায় তাকে আটক করেছে পুলিশ।

নিহত মায়ের নাম রেহেনা খাতুন (৪৫)। তিনি শ্রীপুর উপজেলার কাওরাইদ ইউনিয়নের বলদী সোনাবো পশ্চিম পাড়ার আদুরভিটি এলাকার আনোয়ার হোসেনের স্ত্রী।

শ্রীপুর থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) মনিরুজ্জামান খান জানান, বুধবার সকাল পৌনে ১১টার দিকে বাড়ির উঠানে ধান শুকানোর কাজ করছিলেন রেহেনা খাতুন। এসময় পাশে বসে ডাব খাচ্ছিলেন তার ছেলে ইয়াসিন আরাফাত। হঠাৎ আরাফাত দা দিয়ে তার মায়ের ঘাড় ও দু’হাতসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকেন। এতে গুরুতর আহত হয়ে রেহেনা মাটিতে লুটিয়ে পড়েন।

প্রতিবেশীরা এগিয়ে রেহেনাকে উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে মারা যান। এলাকাবাসী ওই ছেলেকে আটক করে।

খবর পেয়ে পুলিশ বিকেলে ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। এসময় এলাকাবাসী আটক ইয়াসিন আরাফাতকে পুলিশের কাছে সোপর্দ করে।

আটক ইয়াসিন আরাফাত জানান, ‘মায়ের আত্মার শান্তির জন্য তাকে খুন করা হয়েছে। তবে মায়ের জন্য খুব কষ্ট লাগছে।’

কাওরাইদ ইউপি সদস্য আশরাফুল ইসলাম ঢালীসহ নিহতের স্বজনরা জানান, ইয়াসিন আরাফাত স্থানীয় বলদীঘাট জে এম সরকার উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্র। গত কিছু দিন ধরে মানসিক অসুস্থতায় ভুগছিলেন। ঘটনার সময় মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে তিনি এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।



আরো সংবাদ