২৬ নভেম্বর ২০২০

গাজীপুরে ৩৩৪ মন্দিরে চলছে দুর্গাপূজার প্রস্তুতি

গাজীপুরে ৩৩৪ মন্দিরে চলছে দুর্গাপূজার প্রস্তুতি -

গাজীপুরে মহামারী করোনার (কোভিড-১৯) ঝুঁকি নিয়েই পুরোদমে চলছে দূর্গাপূজার প্রস্ততি। স্বাস্থ্য ঝুকির কথা মাথায় রেখে এবছর মন্ডপের সংখ্যা কমিয়ে ফেলা হয়েছে। জেলায় এবার মোট ৩৩৪টি মন্দিরে দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। এদিকে মন্দিরে মন্দিরে প্রতিমা তৈরিতে ব্যস্ত প্রতিমা শিল্পীরা। দুর্গাপূজার দিন যতই ঘনিয়ে আসছে, প্রতিমা তৈরীর শিল্পীদের ব্যস্ততা ততই বাড়ছে।

বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ গাজীপুর জেলা সভাপতি এডভোকেট সুদীপ কুমার চক্রবর্তী জানান, এবার গাজীপুর সদর উপজেলায় ১৮ টি, কাপাসিয়ায় ৫৩ টি, কালীগঞ্জে ৩৫ টি, শ্রীপুরে ৫০ টি, কালিয়াকৈর উপজেলায় ৯০ টি। তবে গাজীপুর মহানগরে এবার পূজা উদযাপন হবে ৮৮টি মন্দিরে যা বিগত বছর ছিলো ১০০টি। গতবছর গাজীপুর সদর উপজেলায় মন্দিরের সংখ্যা ছিলো ২২টি, কালিয়াকৈর ১২৯টি, কাপাসিয়ায় ৫৮টি, শ্রীপুরে ৫০টি, কালীগঞ্জ উপজেলায় ৪৬টি। এবার মহামারি করোনা ভাইরাসের কারণে গাজীপুর জেলায় দূর্গাপূজা মন্ডপের সংখ্যা কমেছে ৫৯টি। আর মহানগরে মন্ডপের সংখ্যা কমেছে ১২টি। জেলা এবং মহানগর মিলিয়ে পুজামন্ডপের সংখ্যা কমেছে ৭১টি। প্রত্যেক উপজেলাতেই তুলনামূলক হারে কমেছে পূজা মন্ডপের সংখ্যা। শুধুমাত্র শ্রীপুর উপজেলাতেই অপরিবর্তিত রয়েছে দূর্গাপূজা পালনে মন্ডপের সংখ্যা।

এদিকে করোনা ভাইরাসের কারণে এ বছর চাঁদা দিতে কষ্ট হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রীর দেয়া উপহার ৫০০ কেজি করে চাল দেয়া হবে প্রতিটি পূজা মন্ডপে। করোনা পরিস্থিতির কারণে প্রতিমা তৈরির উপকরণের বর্তমানে দাম স্বাভাবিকের চেয়েও বেশি। এবার প্রতিমা তৈরীর সুনিপণ কারীগরদের পারিশ্রমিক বাড়ানো হয়েছে।

এই বিষয়ে তিনি আরো বলেন, খড় আর কাঁদামাটি দিয়ে প্রতিমা তৈরীর প্রাথমিক কাজ প্রায় শেষের দিকে। এখন রঙ আর তুলির আঁচড় দিয়ে দুর্গাকে সাজানো হবে। এদিকে করোনা পরিস্থিতি খারাপ হলেও জেলায় শান্তিপূর্ণ, সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরিবেশের মধ্য দিয়ে পূজা উদযাপিত হবে বলে আশা করছেন বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের গাজীপুর জেলার সভাপতি এডভোকেট সুদীপ কুমার চক্রবর্তী।


আরো সংবাদ