২৯ মার্চ ২০২০

অবশেষে গ্রামীণ ব্যাংককে জরিমানা করলেন ইউএনও

-

মানিকগঞ্জের সাটুরিয়ায় করোনাভাইরাসজনিত কারণে কিস্তি আদায়ে নিষেধাজ্ঞা জারি করার পরও কিস্তি আদায় করায় ভ্রাম্যমাণ আদালতে বেসরকারি ঋণদানকারী প্রতিষ্ঠান গ্রামীণ ব্যাংকের ধানকোড়া শাখার ব্যবস্থাপককে ২০০ টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।
ধানকোড়া গ্রামীণ ব্যাংকের গ্রাহক সালমা বেগম জানান, সরকার বিভিন্ন ঋণদান সংস্থাকে একযুগে করোনাভাইরাসের কারণে কিস্তি আদায় সাময়িক ভাবে বন্ধ করা সত্ত্বেও তারা (গ্রামীণ ব্যাংক) সকালে জোর করে কিস্তি আদায় করেছে গ্রামীণ ব্যাংকের লোকজন।

এ বিষয়ে গ্রামীণ ব্যাংক ধানকোড়া শাখার ম্যানেজার মো. ছানোয়ার হোসেন জানান, কিস্তি বন্ধ রাখার বিষয়টি জানতেন না তিনি। সাটুরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জরিমানা করার পর কিস্তি আদায় বন্ধ রাখা হয়েছে। অন্যান্য লেনদেনের জন্য ব্যাংকিং কার্যক্রম চলছে।

সাটুরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আশরাফুল আলম জানান, নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে কিস্তি আদায় করায় ব্যাংক ম্যানেজারকে ২০০ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এরপরও যদি তারা তাদের কার্যক্রম বহাল রাখে, তবে আইন অমান্য করার দায়ে জেল দেয়া হবে।
উল্লেখ্য, গত ২৪ মার্চ ‘করোনার মধ্যে কিস্তি আদায়ে গ্রামীণ ব্যাংকের মাঠকর্মী’ শিরোনামে দৈনিক নয়া দিগন্তে অনলাইন সংস্করণে সংবাদ প্রকাশিত হলে বিষয়টি ফেসবুকে ব্যাপক সমালোচনা হয়।


আরো সংবাদ