০৭ এপ্রিল ২০২০

গাজীপুরে পুলিশ হেফাজতে নারীর মৃত্যু, হত্যার অভিযোগ স্বজনদের

গাজীপুরে পুলিশ হেফাজতে নারীর মৃত্যু, হত্যার অভিযোগ স্বজনদের - নয়া দিগন্ত

গাজীপুরে পুলিশ হেফাজতে ইয়াসমিন বেগম (৪০) নামে এক নারীর মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। স্বজনরা নির্যাতনের মাধ্যমে হত্যার অভিযোগ করলেও পুলিশ বলছে ওই নারী হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। মঙ্গলবার রাতে গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ওই নারী মৃত্যুবরণ করেন।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন ডিবি পুলিশের উপ-কমিশনার মনজুর রহমান জানান, গাজীপুর সদর থানার ভাওয়াল এলাকার আব্দুল হাইয়ের বাড়িতে মাদক বেঁচা-কেনা হচ্ছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ওই এলাকায় অভিযান চালায় পুলিশ। এ সময় একাধিক মাদক মামলার আসামি ইয়াসমিনকে ১শ’ পিস ইয়াবাসহ গ্রেফতার করে পুলিশ। গ্রেফতারের পর মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের কার্যালয়ে নেওয়া হলে ইয়াসমিন অসুস্থ্য হয়ে পড়েন। তাকে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা পাঠানোর পরামর্শ দেন। পরে ঢাকায় নেয়ার প্রস্তুতিকালে হাসপাতালে ওই নারীর মৃত্যু হয়।

তিনি আরো জানায়, নিহত ইয়াসমিন ও স্বামী আব্দুল হাই চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী। তাদের বিরুদ্ধে মাদক আইনে একাধিক মামলা রয়েছে।

নিহতের ছেলে আরাফাত রহমান জিসান জানান, রাতে অজ্ঞাত ব্যক্তি আমাদের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে যেতে বলেন। সেখানে গিয়ে আমরা তার (ইয়াসমিন) মৃত্যুর খবর জানতে পারি। স্বজনরা হাসপাতালের ভিতরে যেতে পুলিশ তাদের বাঁধা দেয় বলে তিনি অভিযোগ করেন। পুলিশের ব্যাপক নির্যাতনে গৃহবধূ ইয়াসমিনের মৃত্যু হয়েছে অভিযোগ করে তিনি বলেন, ইয়াসমিন হৃদরোগী ছিলেন। তিনি স্ট্রোক করায় হার্টে দুটি ব্লক ছিল ।

শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক মো. রফিকুল ইসলাম বলেন, হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে ইয়াসমিন মারা গেছেন বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। নিহতের শরীরে বাহ্যিকভাবে কোনো আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। তবে ময়নাতদন্তের পর তার মৃত্যুর কারণ সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া যাবে।

এদিকে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার মো. আনোয়ার হোসেন জানান, ঘটনা তদন্তের জন্য অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার মো. আজাদ মিয়াকে প্রধান করে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটিকে ৭ কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত রিপোর্ট দেওয়ার জন্য বলা হয়েছে।


আরো সংবাদ

ফতুল্লায় নিজের বাড়িতে মরে পড়ে আছে ব্যবসায়ী, এগিয়ে আসছে না কেউ তিন দিন ধরে খাদ্যগুদাম কর্মকর্তা অফিসে নেই, চাল পাচ্ছে না দরিদ্ররা কবর জিয়ারত থেকে বিরত থাকার অনুরোধ ডিএনসিসির লকডাউনের মধ্যে সমুদ্র সৈকতে যাওয়ায় নিউজিল্যান্ডের স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে বহিষ্কার সাবেক নৌ কর্মকর্তা করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন যুক্তরাষ্ট্রে সিরাজদিখানে ১৫ শতাধিক পরিবারের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করোনা সংক্রমণে চলতি মাস খুবই ঝুঁকিপূর্ণ : স্বাস্থ্যমন্ত্রী রোজার ঈদের ছুটি পর্যন্ত বন্ধ হচ্ছে সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সাঈদীর মুক্তি চেয়ে লোহাগাড়ার ১০১ আলেমের বিবৃতি আওয়ামী লীগ নেতা আনছেন হাজার হাজার অনুমোদনহীন টেস্ট কিট কৃষি উৎপাদন ও বিপণন অব্যাহত রাখতে কাজ করছে কৃষি মন্ত্রণালয়

সকল

দীর্ঘদিন জেলখাটা আসামিদের মুক্তির নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর (২৭৯১৩)করোনা ছড়ানোয় চীনকে যে ভয়ঙ্কর শাস্তি দেয়ার দাবি উঠল জাতিসংঘে (১৭৬৭৩)গাদ্দাফিকে উৎখাতকারী জিবরিলের করোনায় মৃত্যু (১৫৭৯০)রমজান মাসে অফিসের সময়সূচি নির্ধারণ (১৪৩১৪)উকুন মারার ওষুধে ৪৮ ঘণ্টায় খতম করোনা (১৩৯১৮)করোনায় মৃতদের জানাজা-দাফনে প্রস্তুত এক ঝাঁক আলেম (১২৯১২)এবার করোনায় আক্রান্ত বাঘ (১০৬৬১)৩ ঘণ্টার রাস্তা পাড়ি দিয়েছেন ২ দিন, খরচ হয়েছে ৪ হাজার টাকা! (১০৫১৮)'মেয়েকে কোলেও নিতে পারছি না!' দূর থেকে ভেজা চোখে তাকিয়ে পুলিশ অফিসার (১০০৭২)করোনার চিকিৎসায় তুরস্কের অভূতপূর্ব পদক্ষেপ, পাল্টে যাচ্ছে চিকিৎসা পদ্ধতি (৯৭০৬)