০৫ এপ্রিল ২০২০

কালীগঞ্জে স্কুলভবন নির্মাণের দাবিতে শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা বর্জন, মানববন্ধন

শাদেরগাঁও উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের উপজেলা চত্বরে মানববন্ধন ও (ডানে) বাঁশঝাড়ের পাশে শিক্ষার্থীদের পাঠদানের ব্যবস্থা - ছবি : নয়া দিগন্ত

গাজীপুরের কালীগঞ্জে স্কুলের নতুন ভবন নির্মাণের দাবিতে আজ রোববার এক স্কুলের শিক্ষার্থীরা বার্ষিক পরীক্ষা বর্জন ও মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে।

এলাকাবাসী ও শিক্ষার্থীরা জানান, গাজীপুরের কালীগঞ্জে শাদেরগাঁও উচ্চ বিদ্যালয়ের ভবন না থাকায় শিক্ষার্থীদের পাঠদানে বিঘœ হওয়ায় রোববার বার্ষিক পরীক্ষা বর্জন করেছে ষষ্ঠ থেকে নবম শ্রেণীর শিক্ষার্থীরা। তারা শিগগিরই স্কুলের নতুন ভবন নির্মাণের দাবিতে উপজেলা চত্বরে সকাল ১০টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত একটানা চার ঘন্টা মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে।

শিক্ষার্থী লামিয়া আক্তার সুপ্তি, উনজিলা আক্তার হিমা, মো: কাউয়ুম, ফেরদৌস শেখসহ অভিভাবকরা জানান, কালীগঞ্জ পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ড শাদেরগাঁও উচ্চ বিদ্যালয় নতুন ভবন নির্মাণে অজুহাতে পুরাতন ভবনটি ভেঙ্গে ফেলা হয়। ফলে ভবন না থাকায় এরপর থেকে ওই স্কুলের শিক্ষার্থীদের পাঠদান স্কুল সংলগ্ন সিরাজের বাড়ির উঠানে, বাঁশঝাড়ে ও পাশ্ববর্তী পরিত্যক্ত ঝুঁকিপূর্ণ তোয়ালে কারখানায়ও চলতে থাকে। কিন্তু তোয়ালে কারখানাটি ঝুঁকিপূর্ণ হওয়ায় ভবনটি যে কোনো মুহূতে ভেঙ্গে প্রাণহানি ঘটনার আশংকা দেখা দেয়।

এদিকে, দীর্ঘ এক বছর অতিবাহিত হলেও স্কুলের নতুন ভবন নির্মাণ না হওয়ায় চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে শিক্ষার্থীদের। রোদ, বৃষ্টি ও ঝড়ের মধ্যেও চলছে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের শিক্ষা কার্যক্রম। এতে করে শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ার চরম বিঘœ ঘটছে। মেধা শূন্য হচ্ছে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের। ফলে কমে যাচ্ছে ওই স্কুলের শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি। অভিভাবক ও স্থানীয়দের ধারণা, অনতিবিলম্বে নতুন ভবন নির্মাণ করা না হলে শিক্ষার্থী শূন্য হয়ে যাবে ওই স্কুল।

শাদেরগাঁও উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক অলি আজাদ জানান, স্কুলের ড্রয়িং ও লে-আউট করার পরেও ঠিকাদারের গাফিলতির কারণে ভবন নির্মাণের বিঘ্ন হচ্ছে। শিক্ষার্থীদের নিয়ে চরম কষ্টে চালিয়ে যেতে হচ্ছে পাঠদান।

গাজীপুর শিক্ষা প্রকৌশল অধিদফতরের উপ-সহকারী প্রকৌশলী মো: সাইদুর রহমান বলেন, জমি সংক্রান্ত জটিলতার জন্য স্কুলের ভবন নির্মাণ করা যাচ্ছে না। স্কুল ভবন নির্মাণের জন্য যেখানে ১২০ ফুট জমি দরকার সেখানে রয়েছে ১১৪ ফুট। এল শেড করলে কোনো জটিলতা থাকবে না। কিন্তু স্কুল কর্তৃপক্ষ এল শেড ভবন নির্মাণে রাজি নয়।

কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো: শিবলী সাদিক বলেন, জমি সংক্রান্ত জটিলতায় ভবন নির্মাণে বিঘœ হচ্ছে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের আগ্রহ থাকলে এল শেডে ভবন নির্মাণ করা যাবে।


আরো সংবাদ