০৯ আগস্ট ২০২০

৯৯৯ ফোন পেয়ে শীর্ষ ৪ মাদক কারবারী গ্রেফতার

24tkt

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে ৯৯৯ ফোন করে শীর্ষ চার মাদক কারবারীকে গ্রেফতার করে পুলিশ। গত মঙ্গলবার রাতে উপজেলার বারদী ইউনিয়নের চেঙ্গাকান্দি গ্রাম থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন মাদক কারবারী জহিরুল, দুই সহোদর জুয়েল, সোহেল ও পারভেজ। গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে সোনারগাঁও থানায় মাদক, নারী নির্যাতন, ইভটিজিং এর একাধিক মামলা রয়েছে। পুলিশ গ্রেফতারকারীদের বুধবার সকালে নারায়ণগঞ্জ জেলা আদালতে প্রেরণ করে।

এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গত মঙ্গলবার রাতে উপজেলার বারদী ইউনিয়নের চেঙ্গাকান্দি গ্রামের ইদ্রিস মিয়ার ছেলে জহিরুলেরসহ ৭/৮ জনের একটি দল চেঙ্গাকান্দি গ্রামে মাদক সেবনসহ ইয়াবা বিক্রি করছিল।

এ সংবাদে এলাকাবাসী ৯৯৯ ফোন করলে বারদী পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মো: আলমগীরের নেতৃত্বে পুলিশ ওই এলাকায় অভিযান চালায়। এসময় পুলিশ চারজন শীর্ষ মাদক কারবারীকে গ্রেফতার করলেও বাকিরা পালিয়ে যায়।

স্থানীয়দের মতে পুলিশ গ্রেফতারকৃতদের কাছ থেকে বেশ কিছু ইয়াবা ও গাঁজা উদ্ধার করলেও মাদক উদ্ধার হয়নি বলে জানিয়েছেন পুলিশ। পরে গ্রেফতারকারীদের বুধবার সকালে নারায়ণগঞ্জ জেলা আদালতে প্রেরণ করা হয়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এলাকাবাসী জানান, এলাকার শীর্ষ মাদক কারবারী জহিরুলের নেতৃত্বে একটি গ্রুপ এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে মাদক ব্যবসা, সেবন, ইভটিজিং, জায়গা সম্পত্তি দখলসহ নানা অপকর্ম করে থাকে। তারা সরকার দলের নাম করে স্থানীয় চেয়ারম্যান জহিরুল হকের ছত্রছায়ায় এ অপকর্ম করে থাকে।

এদিকে পুলিশ জানান, গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে সোনারগাঁও থানায় মাদক, নারী নির্যাতন, ইভটিজিং এর একাধিক মামলা রয়েছে। তারা সবাই এজাহারভুক্ত আসামী।

গ্রেফতারকৃত জহিরুল বারদী ইউনিয়নের চেঙ্গাকান্দি গ্রামের ইদ্রিস মিয়ার ছেলে, জুয়েল ও সোহেল একই গ্রামের ডা: সিরাজুল ইসলামের ছেলে এবং পারভেজ ওই এলাকার ডা: আলমগীরের ছেলে।

সোনারগাঁও থানার ওসি মো: মনিরুজ্জামান মনির জানান, ৯৯৯ ফোন পেয়ে বারদী পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জকে জানালে ঘটনাস্থলে অভিযান চালিয়ে ৪ মাদক কারবারীকে গ্রেফতার করে। বাকীদের গ্রেফতারে পুলিশি অভিযান অব্যহত রয়েছে। গ্রেফতারকৃতদের আদালতে পাঠানো হয়েছে।


আরো সংবাদ