০২ জুলাই ২০২০

এক প্যাকেট স্যানিটারী ন্যাপকিনের দাম ৭০০ টাকা!

এক প্যাকেট স্যানিটারী ন্যাপকিনের দাম ৭০০ টাকা! - নয়া দিগন্ত

এক প্যাকেট স্যানিটারী ন্যাপকিনের দাম ৭০০ টাকা! এক প্যাকেট চা পাতির দাম ৩ হাজার ৬০০ টাকা! এমএলএম পদ্ধতিতে বিদেশী পণ্য বলে বিক্রি হচ্ছে সাধারণ বাজার মূল্যের থেকে কয়েকগুণ বেশি দামে। পণ্যগুলো বিক্রি করে যে কেউ ঘরে বসেই আয় করতে পারবেন এমন প্রলোভনে এ ফাঁদে পা দিয়েছেন অনেক বেকার যুবক। প্যাকেটে নেই কোনো বাজারমূল্য। ফলে মানসম্মত ভেবেই ক্রয় করছেন ক্রেতারা। তবে প্রতিষ্ঠানটির দাবী এ পণ্য বিদেশী হওয়ার ফলে দামও বেশি।

সাধারণ ক্রেতার চোখে ধরা না পড়লেও প্রতারণার বিষয়টি ধরা পড়েছে রাজবাড়ী জেলা জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তাদের চোখে। এরইমধ্যে যথাযথভাবে মোড়ক ব্যবহার না করার দায়ে এ প্রতিষ্ঠানটি থেকে লক্ষাধিক টাকার মালামাল জব্দ করা হয়েছে। জেলা পাংশা সদরের ইনফিনিটি মার্কেটিং লিমিটেড ও পার্শ্ববর্তী বিসমিল্লাহ ফার্মেসী থেকেও জব্দ করা হয় এমন বেশ কিছু পণ্য।

রাজবাড়ীর পাংশা সদর উপজেলায় জেলা জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তা ও আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা বুধবার বিকেলে এ অভিযান পরিচালনা করেন।

বৃহস্পতিবার দুপুরে জেলা জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মো: শরিফুল ইসলাম বলেন, অভিযানে যথাযথভাবে মোড়ক ব্যবহার না করার দায়ে ইনফিনিটি মার্কেটিং লিমিটেডের লক্ষাধিক টাকা মূল্যের Sankom ও Infinity sanitary napkin জব্দ করা হয়।

তিনি বলেন, ইনফিনিটি মার্কেটিং লিমিটেডের কোনো পণ্যে যথাযথভাবে মোড়ক ব্যবহার করা হয়নি, যার ফলে ভোক্তার অধিকার ক্ষুণ্ণ হচ্ছে। জব্দকৃত Maximen, Sankom এক ধরনের চা যার প্রতি প্যাকেট বিক্রি হচ্ছে ৩ হাজার ৬ শত টাকা, Maximen, Infinity sanitary napkin এর প্রতিটি প্যাকেট বিক্রি হচ্ছে ৭ শত টাকা অথচ বাংলাদেশী এ জাতীয় স্যানিটারী ন্যাপকিন ৭০-৮০ টাকায় পাওয়া যায়। ফলে প্রতিষ্ঠানটির মালামাল জব্দ করা হয়েছে, নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে তাদের কাগজপত্র নিয়ে অফিসে না আসলে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এছাড়াও মূল্য তালিকা প্রদর্শন না করার দায়ে রাব্বি রেস্টুরেন্ট এন্ড ফাস্টফুডকে ৩৮ ধারায় ২ হাজার টাকা জরিমানা আরোপ ও আদায় করা হয়। অভিযানে জেলা প্রশাসন, জেলা পুলিশ এবং জেলা স্যানিটারি ইন্সপেক্টর সুর্য্য কুমার প্রামানিক সহায়তা করেন।


আরো সংবাদ

টাঙ্গাইল,রাজবাড়ী ও ফরিদপুর জেলায় বন্যা পরিস্থিতি অবনতির আশঙ্কা ৪৭ হাজার গ্রাম পুলিশের চাকরি জাতীয়করণে হাইকোর্টের রায় প্রকাশ খাদ্যে ভেজালকারীরা আর জরিমানা নিয়ে প্রশ্ন তুলতে পারবে না : মেয়র তাপস জেদ্দা থেকে দেশে ফিরেছেন আরো ৪১৬ জন ইথিওপিয়ায় জনপ্রিয় সঙ্গীত শিল্পীকে হত্যা : সহিংসতায় নিহত ৮১ করোনা মহামারিতেও বাড়ির দাম বাড়ছে পর্তুগালে দেড় লাখ ছাড়াল করোনা আক্রান্তের সংখ্যা মহামারীর কারণে মধ্যম আয়ের দেশে উন্নীত হওয়ার অগ্রযাত্রা বাধাগ্রস্থ হতে পারে : পররাষ্ট্রমন্ত্রীর শঙ্কা রহস্যজনক মৃত্যু : মুখ থুবড়ে পড়ে আছে শত শত হাতি হোল্ডিং ট্যাক্স ও ট্রেড লাইসেন্সে বিশেষ ছাড় ডিএনসিসির সমালোচনা এড়াতেই তড়িঘড়ি করে বাজেট পাশ করেছে সরকার : ফখরুল

সকল