২৬ মে ২০২০

সোর্সকে ম্যাজিস্ট্রেট সাজিয়ে চাঁদাবাজী করতে গিয়ে ধরা, দুই এএসআই প্রত্যাহার 

সোর্সকে ম্যাজিস্ট্রেট সাজিয়ে চাঁদাবাজী করতে গিয়ে ধরা, দুই এএসআই প্রত্যাহার  - ছবি : সংগৃহীত

নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলার সাবদিতে ব্রহ্মপুত্র নদের তীরে ম্যাজিস্ট্রেট পরিচয় দিয়ে চাঁদাবাজীর অভিযোগে গ্রেপ্তার পুলিশ সোর্স শামীমের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। তাকে সহযোগিতার অভিযোগে পুলিশের দুইজন এএসআই আনোয়ার ইসলাম ও আমিনুল ইসলামকে সাময়িক প্রত্যাহার করে নেয়া হয়েছে।

১৮ আগস্ট রোববার দুপুরে দুইজনকে বন্দর থানা থেকে প্রত্যাহার করে নারায়ণগঞ্জ শহরের মাসদাইর পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়েছে।

বন্দর থানার ওসি রফিকুল ইসলাম জানান, দুইজন এএসআইকে সাময়িক প্রত্যাহার করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় তদন্ত হবে। তদন্ত সাপেক্ষে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে। শামীম নামের যুবকের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, ঈদ উপলক্ষে বন্দর উপজেলার সাবদী এলাকায় ব্রহ্মপুত্র নদের তীরে অস্থায়ীভাবে অনেক দোকানপাট গড়ে উঠে। সেখানে কয়েকদিন ধরে প্রচুর পর্যটকের সমাগম ঘটে। এসব দোকানপাট থেকে ম্যাজিস্ট্রেট পরিচয় দিয়ে পুলিশের সোর্স হিসেবে পরিচিত শামীম প্রতিদিনই টাকা নিত। আর তাকে সহযোগিতা করতেন বন্দর থানা পুলিশের এএসআই আমিনুল ও আনোয়ার।

শনিবার বিকেলে নান্নু স্টোর নামের একটি দোকান থেকে টাকা হাতিয়ে নেয়ার সময়ে শামীমের পরিচয় পত্র দেখতে চাইলে সে পরিচয় পত্র দিতে পারেনি। এতে এলাকাবাসী ক্ষিপ্ত হয়ে শামীমকে গণধোলাই দিয়ে আটকে রাখে। পরিস্থিতি বেগতিক দেখে এএসআই আমিনুল ও আনোয়ার দ্রুত ঘটনাস্থল থেকে সটকে পড়েন। পরে বন্দর থানা পুলিশ গিয়ে শামীমকে উদ্ধার করে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

প্রসঙ্গত এর আগে ২০১৮ সালের ২৬ আগস্ট নারায়ণগঞ্জ শহরের খানপুর বরফকল খেয়াঘাট সংলগ্ন চৌরঙ্গী ফ্যান্টাসি পার্কের সামনে ডিবি পুলিশের সাথে ব্যবসায়ীদের সংঘর্ষের ঘটনায় বন্দরের বর্তমান এএসআই আমিনুল জড়িত ছিলেন এবং প্রত্যাহার হয়েছিলেন।


আরো সংবাদ

সকল





maltepe evden eve nakliyat knight online indir hatay web tasarım ko cuce Friv gebze evden eve nakliyat buy Instagram likes buy Instagram likes cheap Adiyaman tutunu