০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৯ মাঘ ১৪২৯, ১০ রজব ১৪৪৪
ads
`

অ্যাকুয়ারিয়াম

-

জানো, মানুষের শখের শেষ নেই। কিছু ডুবুরি স্বাভাবিক পরিবেশে মাছ ও অন্যান্য জলজন্তুর হালচাল দেখতে নামে সাগরের পানির নিচে। সবাই তো আর ডুবুরি নয়, সাগরের তলায় যাওয়ার সামর্থ্যও নেই সবার। কিন্তু কৌতূহল আছে সবার। তাই কৌতূহল আর শখ মেটাতে মানুষ আশ্রয় নেয় কৃত্রিম পরিবেশে মাছ পোষার, তৈরি করে অ্যাকুয়ারিয়াম। অ্যাকুয়ারিয়াম হচ্ছে বড় কাচের চৌবাচ্চা, যেখানে শখের মাছ পোষার ব্যবস্থা আছে। এখন শহরের অনেক বাসায়ই এটি দেখা যায়। বর্তমানে শুধু বিত্তশালী নয়, সাধারণ মধ্যবিত্তের ঘরেও এটি জায়গা করে নিয়েছে। এমনকি গ্রামের অনেক বাড়িতেও অ্যাকুয়ারিয়াম দেখা যায়।
অ্যাকুয়ারিয়ামকে একধরনের সৌন্দর্যবর্ধক জলযন্ত্রও বলা যায়। শখ-সাধ মেটানোর পাশাপাশি এটি বাসা-বাড়ির সৌন্দর্যও দেয় বাড়িয়ে। রাতে যখন এ জলযন্ত্রে আলো জ্বেলে দেয়া হয়, বড্ড সুন্দর লাগে। সৃষ্টি হয় সুন্দর পারিপার্শ্বিকতা। সুন্দর মাছগুলোর লেজ নাড়া, মুখ হাঁ করা, নিঃশ্বাস ফেলা অনবদ্য। এদের গা নাড়া, পাখনা নাড়া আর ভেসে বেড়ানোও অসাধারণ।


আরো সংবাদ


premium cement