০১ জুলাই ২০২২, ১৭ আষাঢ় ১৪২৯,
`
ভা র তী য় লো ক কা হি নী

শ্রী আংটি

-

(গত দিনের পর)
এই চুলের কন্যাকে না পেলে সে কিছুই মুখে দিবে না।
এক দিন যায়, দুই দিন যায়। রাজপুত্র সেই যে ঘরে খিল এঁটে দিয়েছে। আর বের হচ্ছে না। খাওয়া নেই, ঘুম নেই। তার মুখে একই কথা। আমাকে সেই রূপের কন্যাকে এনে দাও। না হলে আমি কিছুই মুখে দেবো না। না খেয়ে মরে যাবো আমি।
পুত্রের এমন করুণ দশা দেখে রাজা-রানী মহা চিন্তায় পড়ে গেলেন। তারা ভেবে পাচ্ছেন না, কী করবেন এখন। কোথায় যাবেন সেই কন্যার খোঁজে। এই রূপের কন্যাকে না পেয়ে শেষে কি তাদের পুত্র মারাই যাবে? তখন কে হবে এই বিশাল রাজ্যের রাজা। কে চালাবে এই রাজ্য। কার হাতে এই রাজ্যের ভার ছেড়ে দিয়ে রাজা চোখ বুজবেন।
অবশেষে রাজা তার এক মাসিকে খবর পাঠালেন। মাসি যদি কোনো একটি উপায় বের করে দিতে পারে। রাজার সেই মাসিকে নিয়ে একটি ভিন্ন কাহিনী আছে। সেই মাসি আসলে কোনো মানুষ নয়। সে হলো এক ছলনাময়ী রাক্ষুসী। একেক সময় সে একেক রূপ ধারণ করতে পারে। এই হলো সে পাখি, এই হলো মৌমাছি আবার এই হলো সে মানুষ। (চলবে)

 

 


আরো সংবাদ


premium cement