০১ জুলাই ২০২২, ১৭ আষাঢ় ১৪২৯,
`
নি ত্যো প ন্যা স

আকাশের ওপারে আকাশ

-

কাকা মুখের হাসি আরো বিস্তৃত করে বললেন ‘ওরকম শুকনো মুখে ভালো বলছ কেন? তার মানে খুব একটা ভালো
লাগছে না বোধ হয়। না লাগারই কথা।
পঁচাত্তর.

তিতলীর কাকা আসলান দাস্তান হাসিমুখে রিয়াজের মাথায় হাত বুলিয়ে বললেন, ‘রিয়াজ সাহেব, আমাদের পরীরাজ্য তোমার কেমন লাগছে?’
রিয়াজ বিশাল লম্বা কাকার মুখের দিকে মাথা উঁচু করে তাকিয়ে শুকনো মুখে বলল ‘ভালো।’
কাকা মুখের হাসি আরো বিস্তৃত করে বললেন, ‘ওরকম শুকনো মুখে ভালো বলছ কেন? তার মানে খুব একটা ভালো লাগছে না বোধ হয়। না লাগারই কথা। আমার নিজের রাজ্য তাই আমার ভালো লাগে না। তবে তোমাদের দেশ আমার বেশ লাগে। সত্যি বলতে কী, নিজের দেশের চেয়েও ভালো লাগে। আমাদের এখানে ভালো লাগার কী আছে বলো। সবই নিয়মতান্ত্রিক একঘেয়েমি। তোমাদের ওখানে বেশ। নিয়মকানুন কিছু থাকলেও তা মেনে চলার কোনো বালাই নেই। নেই কোনো ন্যায়নীতি। ইচ্ছে স্বাধীন সবকিছু। প্রতিনিয়ত কত উত্তেজনা। কত এডভেঞ্চার। কত থ্রিল। ধুত্তোরি পরীরাজ্যে কোনো থ্রিল নেই। একঘেয়েমি জীবনযাপন। এজন্যই তো আমি বেশির ভাগ সময় তোমাদের ওদিকটাতে কাটানোর চেষ্টা করি। আচ্ছা, এক কাজ করলে কেমন হয়। তুমি আমাদের পরীরাজ্যে থেকে যাও। আর আমি তোমাদের ওখানে থেকে যাই তাহলে শোধবোধ হয়ে যাবে। কি থাকবে আমাদের এখানে?
রিয়াজ কিছু বলার আগে তিতলী বলল, ‘উহু ও থাকবে না। মাও থাকতে বলেছিল, ও রাজি হয়নি। তবে আমার ছুটির কদিনে ও আমাদের এখানে থাকবে। আর ওর মাকে খুঁজবে।
‘কেন ওর মায়ের কী হয়েছে?’
‘ওর মা হারিয়ে গেছে। ওদের ওখানকার লোকেরা নাকি বলেছে যে ওর মাকে পরীরা তুলে নিয়ে গেছে।’ (চলবে)

 


আরো সংবাদ


premium cement