২৭ জানুয়ারি ২০২২, ১৩ মাঘ ১৪২৮, ২৩ জমাদিউস সানি ১৪৪৩
`

ব্ল্যাক উইডো

ব্ল্যাক উইডো -

আজ তোমরা জানবে ব্ল্যাক উইডো সম্পর্কে। ব্ল্যাক উইডোর তিনটি প্রজাতি রয়েছে। তিনটি প্রজাতিই দক্ষিণ আমেরিকায় পাওয়া যায়। লিখেছেন মুহাম্মদ মাসুম বিল্লাহ
জানো, ব্ল্যাক উইডো দক্ষিণ আমেরিকার বিষাক্ত মাকড়সা? শুধু স্ত্রী ব্ল্যাক উইডোই বিষাক্ত। পুরুষ মাকড়সার কামড়ে কোনো ক্ষতি হয় না। স্ত্রী মাকড়সার কামড় মানুষের জন্য খুবই বিষাক্ত। তবে এর কামড়ে মৃত্যুর ঘটনা বিরল। কারণ এরা কামড় দেয়ার সময় সামান্য পরিমাণ বিষ প্রয়োগ করে। বিষের পরিমাণ বেশি হলে মানুষের ক্ষেত্রে বড় ধরনের ক্ষতি হতে পারে। বয়স্কদের তুলনায় শিশুদের ক্ষেত্রে এ ক্ষতির পরিমাণ বেশি।
বিষাক্ত হলেও এরা মোটেই আক্রমণাত্মক নয়। নিজেকে বাঁচানোর জন্যই কামড় দেয়।
একটি জনপ্রিয় বিশ্বাস থেকে এ ব্ল্যাক উইডো নামের উদ্ভব। ধারণা করা হয় যে, মিলনের পরে স্ত্রী মাকড়সাটি পুরুষটিকে হত্যা করে। আর পুরুষটি মারা যাওয়ার কারণে স্ত্রীটি হয়ে যায় বিধবা। সে কারণেই এর নাম কালো বিধবা বা ব্ল্যাক উইডো মাকড়সা। বিজ্ঞানীরা দু’টি ব্ল্যাক উইডো গবেষণাগারে বন্দী করে পর্যবেক্ষণ করেন। তারা দেখতে পান যে, মিলনের পরে বন্দী থাকার কারণে পুরুষটি পালাতে পারেনি। কিন্তু প্রাকৃতিক পরিবেশে মিলন শেষে পুরুষ মাকড়সাটি পালিয়ে যায়।
ব্ল্যাক উইডোর তিনটি প্রজাতি রয়েছে। তিনটি প্রজাতিই দক্ষিণ আমেরিকায় পাওয়া যায়। এদের পা-গুলো বেশ লম্বা এবং মসৃণ। দেহের রঙ চকচকে কালো। উদরীয় অংশে লাল দাগ রয়েছে। এ দাগ কোনোটির ক্ষেত্রে হলদে রঙেরও হতে পারে। স্ত্রী মাকড়সাটি আকারে পুরুষটির চেয়ে দ্বিগুণ বড় হয়। পুরুষটির দেহের পাশে চারটি উজ্জ্বল ফোঁটা দাগ রয়েছে। এরা মজবুত চোঙ্গাকৃতির (ফানেল) জাল তৈরি করে। স্ত্রী মাকড়সাটি জালের সামনের দিকে ঝুলে থাকে। কোনো শিকার জালে এলে মৃদু কম্পন সৃষ্টি হয়। ব্ল্যাক উইডো সে কম্পন সহজেই অনুভব করতে পারে। ফলে এটি দ্রুত শিকারের দিকে এগিয়ে যায় এবং এক ধরনের আঠালো রেশমি পদার্থ নিক্ষেপ করে। শিকারটি এ আঠালো পদার্থে জড়িয়ে গেলে আর নড়াচড়া করতে পারে না। পরে ব্ল্যাক উইডো গিয়ে খুব সাবধানে শিকারটির পেছনের পায়ে কামড় বসায় এবং বিষ প্রয়োগ করে শিকারটিকে অবশ করে ফেলে। এ কৌশল ব্যবহার করে এরা বিভিন্ন ধরনের পতঙ্গ, ছোট অমেরুদণ্ডী প্রাণী এমনকি বড় আকারের তেলাপোকাও শিকার করে।
স্ত্রী ব্ল্যাক উইডো প্রায় ২৫০টি ডিম পাড়ে। একটি হলুদাভ বাদামি ডিমথলির পাশে ২০ দিন ডিমে তা দেয়। ডিম থেকে বের হয়ে বাচ্চা মাকড়সা এ থলিতেই চার দিন থেকে প্রায় এক মাস অবস্থান করে। থলি থেকে বের হওয়ার পরে পরিপক্বতা অর্জনের পূর্বপর্যন্ত পুরুষ মাকড়সাটি তিন থেকে ছয়বার এবং স্ত্রীটি ছয় থেকে আটবার খোলস পাল্টায়।


আরো সংবাদ


premium cement