১২ এপ্রিল ২০২১
`

ইবনুল বান্না

ইবনুল বান্না -

আজ তোমরা জানবে ইসলামী সোনালি যুগের মনীষী ইবনুল বান্না সম্পর্কে। অনেকের মতে তিনি ৭৪টি বই লেখেন। তার সব বই অঙ্ক ও জ্যোতির্বিজ্ঞানবিষয়ক। লিখেছেন লোপাশ্রী আকন্দ
জানো, ইবনুল বান্না ইসলামী সোনালি যুগের বিখ্যাত মনীষীদের একজন? তার মতে ইসলাম ধর্মের সাথে বিজ্ঞানের কোনো বিরোধ নেই, বরং আছে একাত্মতা।
ইবনুল বান্না ফাস নগরে উচ্চশিক্ষা লাভ করেন। এরপর তিনি চিকিৎসক, অঙ্কবিশারদ ও জ্যোতির্বিজ্ঞানী হিসেবে খ্যাতি অর্জন করেন। আধ্যাত্মিক বিজ্ঞান সম্পর্কেও তার শিক্ষা ও দীক্ষা ছিল। বীজগণিত, পরিমিতি, জ্যোতির্বিজ্ঞানসহ জ্ঞানের অনেক বিভাগেই তার দক্ষতা ছিল। তার বইয়ের সংখ্যা ৫১। অনেকের মতে তিনি ৭৪টি বই লেখেন। তার সব বই অঙ্ক ও জ্যোতির্বিজ্ঞানবিষয়ক। তার শ্রেষ্ঠ বইয়ের নাম তালখিম ফি আসালোন হিসাব। কেউ কেউ মনে করেন বইটি আল-হামসার বইয়ের ওপর ভিত্তি করে লিখিত। এ বইয়ে বিশেষভাবে আলোচনা করা হয় ভগ্নাংশের উন্নততর বিষয়, পাশ্চাত্য প্রণালীতে ভারতীয় সংখ্যা ব্যবহার, বর্গ এবং ঘনসমষ্টি নয়, আট ও সাত বাদ দেয়ার পদ্ধতি। ইবনুল বান্নার ছাত্র ইবনে দাউদ, মিসরের ইবনুল মাজিদি, কালামাদি আল-ইসাবিলি প্রমুখ বিখ্যাত বৈজ্ঞানিক এ বইয়ের ভাষ্য লেখেন। বইটির ব্যাপক ভাষ্য প্রণয়নই প্রমাণ করে এর অসাধারণ গুরুত্ব।
ইবনুল বান্নার জন্ম আফ্রিকার মরক্কোয়, ১২৫৬ সালে। মৃত্যু ১৩২১ সালে।



আরো সংবাদ