২০ এপ্রিল ২০২১
`
আ ফ্রি কার রূ প ক থা

রাজার জাদুর ড্রাম

-

তিন.
আমি নিজের এবং আমার পরিবারের খাবারের জন্য গাছটিতে আরোহণ করেছি। আপনি আমার বাদামটি নিয়ে আপনার সন্তানের হাতে দিলেন। আমি পুরো বিষয়টি রাজাকে জানিয়ে দেবো। যখন তিনি শুনবেন, তার স্ত্রীদের একজন আমার খাবার চুরি করেছে তখন আপনাকে কী বলে দেখতে পাবেন।’
দেশীয় রীতি অনুযায়ী এটি অত্যন্ত মারাত্মক অপরাধ। ইকওয়ার এদেম তখন কচ্ছপকে বললেন,‘আমি আপনার বাদামটি মাটিতে পড়ে থাকতে দেখেছিলাম। ভেবেছিলাম, এটি গাছ থেকে পড়েছে। তাই আমি আমার ছোট মেয়েকে খেতে দিলাম। কিন্তু আমি তা চুরি করিনি। আমার স্বামী রাজা। একজন ধনী ব্যক্তি। যদি আপনার অভিযোগ থাকে আমার বা আমার সন্তানের বিরুদ্ধে, অভিযোগ করার জন্য আমি আপনাকে তার কাছে নিয়ে যাব।’
রানী (ইকওয়ার এদেম) তার মেয়েকে পানি দিয়ে ধুয়ে পরিষ্কার করে নিলেন। আর কচ্ছপটিকে তার স্বামীর কাছে নিয়ে গেলেন। যা কিছু ঘটেছে তা তাকে জানালেন। এরপর রাজা কচ্ছপকে তার বাদামের ক্ষতিপূরণ হিসেবে সে কী চায় তা জিজ্ঞেস করলেন। রাজা তাকে অর্থ, কাপড়, তালের তেল (পাম-তেল) দেয়ার প্রস্তাব দিলেন। এ সব কিছু নিতে কচ্ছপ একের পর এক অস্বীকার করল। রাজা তখন কচ্ছপটিকে বললেন,‘তোমার পছন্দ অনুযায়ী তুমি কী নেবে?’ কচ্ছপটি তখন ড্রামের দিকে নজর দিলো। সে বলল, ‘এটাই সেই জিনিস যা আমি চাই।’
(চলবে)



আরো সংবাদ