০৬ মার্চ ২০২১
`
ও য়ে ল সে র রূ প ক থা

ক্যারাগোনানের পরী

-

(গত দিনের পর)

ভদ্রলোকটিকে সারিয়ে তুলে পরীরানী ফিরে এলো তার ক্যারাগোনান দ্বীপের প্রাসাদে। সব কিছু সে বর্ণনা করল তার মেয়ে পরীকন্যার কাছে। পরীকন্যা বলে, তা হলে মা, ওই জাদুকরী ডাইনি বুড়িকে শাস্তি দেয়া যায় না? পরীরানী বলে, সে ক্ষমতা আমাদের দেয়া হয়নি, মা। ‘তবে মনুষ্যকুলের কেউ যদি বুড়িকে শাস্তি দিতে চায়, তা হলে আমরা তাকে সাহায্য করতে পারি।’
সেই রাতে পরীকন্যা আবার পিউফিন পাখি হয়ে উড়ে চলে গেল ওয়েলস দ্বীপে। রাতের অন্ধকারে পিউফিন পাখায় উড়ে উড়ে সে ঘুরে বেড়াতে লাগল ওয়েলসের পাড়ায় পাড়ায়। হঠাৎ পরীকন্যা কোথায় যেন কার কান্নার শব্দ শুনতে পায়। সে তখন চলে যায় সেই কান্নার শব্দ ধরে। কিছু দূর গিয়েই দেখে একটি গরিব কৃষক তার প্রিয় গাভীটির গলা জড়িয়ে ধরে কাঁদছে। আর তার পাশে দাঁড়িয়ে আছে কৃষকের ছেলেটি, হৃষ্টপুষ্ট সুঠামদেহী এক যুবক। বড় অপরাধীর চেহারা নিয়ে দাঁড়িয়ে আছে সে তার পিতার সামনে। ( চলবে)



আরো সংবাদ