০৮ আগস্ট ২০২০

দুই গোয়েন্দার অভিযান- ১০ পর্ব

-
24tkt

রেজা আর সুজা দুই ভাই। রেজা বড়। সুজা ছোট। বাংলাদেশী। আমেরিকায় বসবাস। হাইস্কুলের ছাত্র। শখের গোয়েন্দা। অ্যাডভেঞ্চার ওদের রক্তে। রহস্যের নেশায় পাগল। নতুন যুগের নতুন গোয়েন্দা ওরা। নতুন নতুন অভিযানে ঝাঁপ দিয়ে ঘুরে বেড়ায় দুনিয়াময়...
চল্লিশ.

‘চুনি পাথরের আংটিটা কোথায় পেলেন?’ লোকটার মুখোমুখি দাঁড়াল রেজা।
প্রশ্নটায় অদ্ভুত প্রতিক্রিয়া হলো লোকটার। মনে করল, ছেলেরা ওর আংটি কেড়ে নিতে এসেছে। চেঁচিয়ে উঠে রেজার পাশ কাটানোর চেষ্টা করল।
ঝট করে পা বাড়িয়ে দিলো রেজা। তাতে বেঁধে হুমড়ি খেয়ে পড়ে গেল লোকটা। চোখের পলকে লোকটার পিঠে বসে তাকে মাটিতে চেপে ধরল সুজা।
‘এবার আশা করি প্রশ্নের জবাব দেবেন!’ চিবিয়ে চিবিয়ে বলল সে।

রেজা-সুজা আর নাবিককে ঘিরে কৌতূহলী দর্শকের ভিড় জমে গেল।
‘হ্যাঁ, এবার বলুন।’ টেনে লোকটাকে খাড়া করল রেজা।
গাট্টাগোট্টা, বাদামি চামড়ার লোকটা সোজা হয়ে দাঁড়াল। জ্বলন্ত চোখে দুই গোয়েন্দার দিকে তাকিয়ে বলল, ‘আংটির কথা তো? কী জানতে চাও?’
‘কোথায় পেলেন এটা?’ সুজার প্রশ্ন।
‘চুরি করিনি, এটুকু বলতে পারি। তোমরা তো তাই ভাবছ।’ মুখটাকে গোমড়া করে রেখেছে লোকটা। ‘গত রাতে একজনের কাছ থেকে কিনেছি। সে-ও আমার মতোই নাবিক।’
‘দেখতে কেমন?’ রেজা জানতে চাইল।
লাল হয়ে গেল লোকটার মুখ। ‘কেন?... ইয়ে... আমি জানি না। তবে ওই লোকটাও ভারতীয়। দেখো, আমি যে মিথ্যে বলিনি প্রমাণ করে দিতে পারি।’
ঘুরে দাঁড়িয়ে চিৎকার করে দোকানদারকে ডাকল সে। এগিয়ে এসে লোকটার পক্ষে কথা বলল দোকানদার। জানাল, আংটি বেচাকেনার ঘটনাটা সে দেখেছে।
কী আর করা। নাবিকের কাছে মাপ চেয়ে বলল রেজা, ‘আমাদের ভুল হয়ে গেছে। বলুন, কী করলে কিছু মনে করবেন না?’
(চলবে)


আরো সংবাদ

প্রদীপের অপকর্ম জেনে যাওয়ায় জীবন দিতে হয়েছে সিনহাকে? (৩১১৭৪)মেজর সিনহা হত্যা : ওসি প্রদীপ, ইন্সপেক্টর লিয়াকত আলীসহ ৭ পুলিশ বরখাস্ত (৯৭৪৪)আয়া সোফিয়ায় জুমার নমাজ শেষে যা বললেন এরদোগান (৭০৬৭)জাহাজ ভর্তি ভয়াবহ বিস্ফোরক বৈরুতে পৌঁছল যেভাবে (৬৯২১)পাকিস্তানের বোলিং তোপে লন্ডভন্ড ইংল্যান্ড (৬৭৩২)নতুন রাজনৈতিক দলের ঘোষণা দিলেন মাহাথির (৬৫১৯)অযোধ্যায় রামমন্দির নির্মাণ নিয়ে কড়া বিবৃতি পাকিস্তানের, যা বলছে ভারত (৬৪০১)সাগরের ইলিশে সয়লাব খুলনার বাজার (৫৪৮৮)এসএসসির স্কোরের ভিত্তিতে কলেজে ভর্তি হবে শিক্ষার্থীরা (৫৪৭৪)কানাডায়ও ঘাতক বাহিনী পাঠিয়েছিলেন মোহাম্মাদ বিন সালমান! (৫৩৮৫)