৩১ মে ২০২০
উ জ বে কি স্তা নে র লো ক ক থা

এক পয়সার সদাই

-

সুনীল সরোবরে টলটল পানি। কাচের মতো পরিষ্কার। চার দিকে সবুজ পাহাড়। তার ঠিক মধ্যখানে সরোবরটি। সরোবরের একধারে একটি মাত্র বাড়ি। প্রচুর পয়সাওয়ালা এক সওদাগরের বাড়ি এটি। বাড়ি তো নয় যেন রাজপ্রাসাদ। পরিপাটি সুন্দর ছিমছাম। বাড়িটির আশপাশে পাখির কলকাকলি, বন্য পশুদের আনাগোনা। তবে হিংস্র পশু নেই বললেই চলে।
সওদাগরের বাড়িতে দু’জন মাত্র মানুষ। সওদাগরের স্ত্রী ও তার যুবক ছেলে। অবশ্য বাড়িতে চাকর বাকর আছে অনেক। সওদাগর নিজে খুব একটা থাকেন না বাড়িতে। কারণ, বছরের বেশির ভাগ সময়ই তাকে বাণিজ্য করতে হয়। এ জন্য দেশে দেশে ঘুরে বেড়ান তিনি। এক দেশে পণ্য কেনেন, অন্য দেশে নিয়ে বিক্রি করেন। প্রচুর লাভ হয় তাতে। তা ছাড়া, বিদ্যা-বুদ্ধিতেও তিনি অনেক বড়। বাণিজ্য বোঝেন। কোন্ দেশের পণ্য কোন্ দেশে নিয়ে বিক্রি করলে বেশি লাভ হবে, এটা তার নখদর্পণে। অত্যন্ত বুদ্ধিমান ও পয়সাওয়ালা এই সওদাগরের একটাই দুঃখ। দুঃখটা তার ছেলেকে নিয়ে।


আরো সংবাদ