০৩ জুন ২০২০
আ ফ্রি কা ন লো ক ক থা

আকাশ বাড়ি

-

(গত দিনের পর)
গ্রামের মোড়ল! সে কি আর যেন-তেন কেউ? দুই চোক্ষে দেখতে পারেন না তিনি আভিলাকে। মনে মনে তার চৌদ্দগোষ্ঠী উদ্ধার করেন। কিন্তু সামনা সামনি হলেই মোড়ল চুপ। তখন আর মুখে কথা সরে না তার। কোন কথা বলে আবার কোন বিপাকে পড়ি। এমনি ভাব তার। তাই, আভিলার কাছ থেকে যতটা সম্ভব আড়ালেই থাকেন তিনি। মরে যাক লোকটা, মরে যাক। আর পারি নে। কী যে বজ্জাত ওই আভিলাটা। সারাক্ষণ খালি হি হি করে হাসে, আর হাটে গিয়ে হাঁড়ি ভাঙে। আরে গোপন-টোপন তো সবারই কিছু না কিছু থাকে? ঠোঁটকাটা আর কাকে বলে। সে এক মহাযন্ত্রণা! না, আর না। এবার তাকে কাবু করতেই হবে। এমন শিক্ষা এবার দেবো, বাপের নাম ভুলিয়ে ছাড়ব। শত হলেও গ্রামের মোড়ল আমি। দায়িত্ব কর্তব্য বলে তো কিছু আছে, নাকি? নিজেকেই নিজে প্রশ্ন করে মোড়ল। নিজের কথায় নিজেই সমর্থন দেন।
অবশেষে একদিন মোড়ল তাকে ডেকে পাঠালেন। আভিলাকে এবার সায়েস্তা করতেই হবে। যে করেই হোক দমাতে হবে তাকে। না হলে টেকা যাবে না। মোড়ল দু’জন ঘনিষ্ঠ কর্মচারীকে ডেকে পাঠালেন। যাও, আভিলাকে আজ আমার সাথে দেখা করতে বলো। বিকেলের মধ্যেই। না এলে ধরে নিয়ে এসো। (চলবে)


আরো সংবাদ