২০ জানুয়ারি ২০২১
`

দুই গোয়েন্দার অভিযান অভিযান

-

ষোলো.

‘রাখতে আমরা চাইও না, দিয়ে দেবো,’ জবাব দিলো রেজা। ‘আচ্ছা, জাহাজটা কোন ধরনের গ্যালিয়ন বলে মনে হয় আপনাদের?’
এবার কথা বলল ডন, কিছুটা ধারাল কণ্ঠেই জবাব দিলো, ‘সেটা আমাদের গোপন ব্যাপার। তা ছাড়া তোমাদের মতো নবিসদের বলবই বা কেন?’
রেগে গেল সুজা।
নাশতা রেডি জানাতে এসেছিল নেড। লোকটার কথা কানে যেতে সুজার পেছন থেকে বলে উঠল, ‘নবিস বলছেন কাদের? আমরা কী পেয়েছি, জানেন...’
নেডকে চুপ করাতে ওর পা মাড়িয়ে দিলো সুজা।
‘কী পেয়েছ?’ ভুরু নাচাল ব্রুকার। ‘অ্যাঁ, কী পেয়েছ?’

জবাব না পেয়ে ব্রুকারের আন্তরিক ভঙ্গিটা মুহূর্তে উধাও হয়ে গেল।
‘এত গোপনীয়তার কী হলো?’ রেগে গেল সে। ‘আমরা এক্সপার্ট। আমরা দেখে বলতে পারব, যে জিনিসটা পেয়েছ সেটা আসল না নকল।’
মাথা নাড়ল রেজা। ‘আসল না নকল জানার দরকার নেই আমাদের।’
ঠোঁটের এক কোণ বাঁকিয়ে হাসল টেনি। ‘সরকারি জিনিস মেরে দেয়ার তাল করছো। তোমাদেরকে পুলিশে দিতে পারি, তা জানো?’
‘কে বলল মেরে দিয়েছি আমরা?’ ভুরু কুঁচকাল জিমি।
‘চালাকির চেষ্টা কোরো না!’ ধমকে উঠল ডন।
‘দূর! এতসব প্যাচাল এখন ভাল্লাগছে না!’ বিরক্ত হয়ে গেল নেড। ‘এই, এসো তোমরা। নাশতা রেডি। এখন না গেলে ডিম যাবে ঠাণ্ডা হয়ে, খাওয়া যাবে না আর।’
(চলবে)



আরো সংবাদ