০৮ জুলাই ২০২০
ক ম্বো ডি য়া র রূ প ক থা

তিন টেকোর গল্প

-

(গত দিনের পর)

তিন দিন তিন রাত পথ চলল তারা। দীর্ঘ পথচলায় অনেক কষ্ট। পা ব্যথা হয়ে যায়। তা হোক। শেষতক গন্তব্যে পৌঁছল তারা। টলটলে পানির পুকুর পেয়ে গেল সাধুর কথামতো। সাথে সাথেই ঝাঁপিয়ে পড়ল তিন টেকো। এক ডুব দিয়ে উঠে গেল ঝটপট। মাথায় হাত বুলোতে শুরু করল তিনজনই। সত্যিই তো। সাধুর কথা এক্কেবারে সত্যি। এক বর্ণ মিথ্যে নেই তাতে। তারা দেখল, সবার মাথাভর্তি চুল। ঘন চুল। কম বয়সে যেমন কালো ঘন চুল থাকে, ঠিক সে রকমই। আশ্চর্য ব্যাপার তো!
আনন্দের চোটে সাধুর সতর্কবাণীর কথা বেমালুম ভুলে গেল তারা। আনন্দে মশগুল হয়ে গেছে তিনজনই। আহা কী আনন্দ! মুক্তির কী শিহরণ! সবাই ইচ্ছেমতো ঝাঁপাঝাঁপি করল সেই পুকুরে। ডুবের পর ডুব দিলো। যে সরদার গোছের, সে অন্য দু’জনকে বলল,
চলো হে, আমরা ইচ্ছেমতো ডুব দিতে থাকি। যত বেশি ডুব দেবো, চুল তত বেশি পোক্ত হবে। ঘন হবে। শত্রু সমালোচকদের মুখে ছাই দেবো আমরা। (চলবে)

 


আরো সংবাদ

পরীক্ষা দিতে যাওয়ার সময় বাস উল্টে ২১ জনের মৃত্যু ৫৮ বছরের পুরনো খবর যে কারণে ভাইরাল পার্বত্য এলাকায় একের পর এক হত্যাকাণ্ড আর সংঘর্ষ হচ্ছে কেন? অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে ক্রেস্টের এমডি রিমান্ডে, স্ত্রী কারাগারে ইসরাইলি দখলের বিরুদ্ধে বিশ্বের কার্যকর অবস্থান চায় আরব ভারত : ধাঁধা দু’টির জবাব মেলেনি মুরাকামি ও প্রাচ্য-পাশ্চাত্যের মেলবন্ধন ইসরাইলের ভূমি দখল পরিকল্পনা তৃতীয় ইন্তিফাদা রোগীর চিকিৎসা করাতে এসে হাসপাতাল থেকে ৪০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়ার অভিযোগ আসন্ন ঈদে কোরবানির পশু পরিবহনের পরিকল্পনা নিয়েছে রেলওয়ে বিদ্যুৎ বিলে বিলম্ব মাশুল ছাড় দেয়া হবে ৩০ জুলাই পর্যন্ত

সকল