১০ ডিসেম্বর ২০২৩, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪৩০, ২৫ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৫ হিজরি
`

আমার জন্য দোয়া করবেন, আর আমাকে ভুইলেন না : তামিম

তামিম ইকবাল - ফাইল ছবি।

বিশ্বকাপের জন্য ঘোষিত বাংলাদেশের চূড়ান্ত দল থেকে বাদ পড়েছেন দেশসেরা ওপেনার তামিম ইকবাল খান। বাদ পড়ার পর এক প্রতিক্রিয়ায় আজ (বুধবার) মুখ খুলেছেন তিনি। নিজের অফিসিয়াল ফেসবুকে একটি ভিডিও বার্তা দিয়েছেন তামিম। ১২ মিনিটের সেই ভিডিওর শেষে তিনি অনুরোধ করেছেন তাকে মনে রাখতে। কেউ যেন তাকে ভুলে না যায় সেটাও মনে করিয়ে দিয়েছেন।

বিশ্বকাপ দলে না থাকা ও বিসিবির সাথে তামিমের পুরো যোগাযোগপ্রক্রিয়া শুরুতেই তুলে ধরেন টাইগারদের এই দেশসেরা ওপেনার। ভিডিও বার্তার শেষদিকে তামিম সকলের উদ্দেশে বিনয়ের সাথে অনুরোধ করেন, ‘আমার জন্য দোয়া করবেন, আর একটাই রিকুয়েস্ট করবো সবাইকে- আমাকে মনে রাইখেন, ভুলে যাইয়েন না।’

এর আগে ভিডিওর শুরুতে তামিম বলেন, ‘যে জিনিস ঘটেছে, সেটা আমি আপনাদের পুরো ধাপে ধাপে জানাতে চাই। কারণ আমার কাছে মনে হয়েছে এটা আমার ভক্ত বা ক্রিকেটপ্রেমিদের জানা দরকার। গত জুলাইয়ে আমি অবসর নিই, সেটার একটা কারণ ছিল। পরে প্রধানমন্ত্রীর চাওয়াতে ফিরে আসি। পরের দুই মাসে প্রচণ্ড কষ্ট করেছি। এরকম কোনো সেশন বা ব্যয়াম নাই উনারা চেয়েছে, আমি করিনি।’

‘খেলাটা যখন কাছাকাছি আসলো, আমি খুব বেশি খুশি ছিলাম না যা কিছু ঘটেছে শেষ চার-পাঁচ মাসে। যখন আমি খেলা শুরু করলাম ৩০-৩৫ ওভারের মতো ফিল্ডিং করলাম। দ্বিতীয় ম্যাচে ব্যাটিংয়ের সুযোগ আসলো, কিন্তু আমি সম্ভাব্য সেরাটা করেছি। ওই মুহূর্তে দরকার ছিল কিছু রান করা, ব্যাটিংটা কেমন হচ্ছে দেখা। ওই ম্যাচের পর আমি অনেক খুশি ছিলাম। শেষ চার পাঁচ ম্যাচে যা হয়েছে এগুলো মাথায় ছিল না। আমি বিশ্বকাপ খেলার দিকে তাকিয়ে ছিলাম’, যোগ করেন তামিম।

এ সময় তিনি আরো বলেন, বোর্ডের টপ লেভেল থেকে একজন ফোন করে আমাকে বললো, ‘তুমি বিশ্বকাপে যাবা, কিন্তু তোমাকে তো ম্যানেজ করে খেলাতে হবে। একটা কাজ করো, তুমি প্রথম ম্যাচ খেলিও না।’ আমি বলেছি, এখনো ১২-১৩ দিন সময় আছে। এই সময়ের মধ্যে তো আমি ভালো অবস্থায় থাকবো। তো কি কারণে খেলবো না? তখন বললো, ‘আচ্ছা তুমি যদি খেলো তাহলে আমরা পরিকল্পনা করছি, তুমি নিচের দিকে খেলবা।’

‘স্বাভাবিকভাবে বুঝতে হবে আমি কোন মানসিকতা থেকে এসেছি। আমাকে যদি হুট করে এসব ধরণের কথা বলা হয়। আমার পক্ষে নেয়া আসলে সম্ভব না। আমি ১৭ বছর ধরে এক পজিশনে ব্যাট করেছি। আমি জীবনে কোনদিন তিন-চারে ব্যাটিং করিনি। আমি যদি তিন চারে ব্যাট করতাম তাহলে মানিয়ে নেয়ার মতো ছিল। আমার এরকম কোনো অভিজ্ঞতা নেই।’-যোগ করেন তামিম।

টিম ম্যানেজমেন্টের এমন প্রস্তাব ভালোভাবে নেননি তামিম। তিনি বলেন, আমি এটা ভালোভাবে নেইনি। আমি উত্তেজিত হয়ে গিয়েছিলাম। আমি এটা পছন্দ করিনি। আমি মনে করেছি আমাকে জোর করে করে বাধা দেয়া হয়েছে।


আরো সংবাদ



premium cement