০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ১৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরি
`

কাঁদলেন সোহান কন্যা, লক্ষ্য জানালেন তাসকিন

কাঁদলেন সোহান কন্যা, লক্ষ্য জানালেন তাসকিন - ফাইল ছবি

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এতক্ষণে ভাইরাল দৃশ্যটা, বাবাকে জড়িয়ে ধরে সোহান কন্যার কান্না যেন থামছেই না। বাবার কোল ছাড়তে চাচ্ছে না সে, বাবাকে রেখে যাবে না। সোহানও বুকে পাথর বেঁধে কন্যাকে সান্ত্বনা দিয়ে মায়ের কোলে তুলে দিতে গিয়েও যেন মনে সায় পাচ্ছেন না। এক হৃদয়বিদারক দৃশ্যের অবতারণা। যেই দৃশ্যের কোনো ভাষা হয় না, ব্যখ্যা হয় না, যেই দৃশ্য মেনে নেয়া যায় না। আহা! কী নিষ্ঠুর বিচ্ছেদের বেদনা!

ত্রিদেশীয় সিরিজ ও বিশ্বকাপ খেলতে গত রাতে বাংলাদেশ দল দেশ ছাড়ার আগে বিমানবন্দরে বাবা-মেয়ের এমনই করুণ দৃশ্যের দেখা মেলে। শুধু সোহান নয়, দলের বাকীদেরও গল্প একই। প্রিয়জনদের রেখে প্রায় দেড় মাসের এক দীর্ঘ সফরে তারা। কিন্তু কী আর করা যাবে, সোহানদের যে যেতেই হবে। ১৬ কোটি মানুষের প্রত্যাশার পাহাড় যে তাদের কাঁধে। দেশের প্রতিটি মানুষের স্বপ্ন, আশা, ভরসা, বিশ্বাস; আবেগ, উদ্দীপনা, উচ্ছ্বাস যে জড়িয়ে আছে তাদের মাঝে। তাদের দিকেই তাকিয়ে আছে পুরো দেশ।

দেশ ছাড়ার আগে বিমানবন্দরে সংবাদমাধ্যমের কথা বলেছেন তাসকিন আহমেদ। যেখানে তিনি দেখিয়েছেন সময়ের বাস্তবতা। আবেগ সরিয়ে জানিয়েছেন লক্ষ্য, উদ্দেশ্য আর বিশ্বাসের কথা। বলেন হুট করেই তো আর সবকিছু বদলে যাবে না, ১-২ মাসেই তো আর চ্যাম্পিয়ন হওয়া যায় না।

সেমিফাইনাল খেলতে পারবে কিনা এমন প্রশ্নের উত্তরে তাসকিন বলেন, আমাদের স্বপ্ন আছে। তবে এখন উন্নতিটাই মূল লক্ষ্য। ১-২ মাসে তো চ্যাম্পিয়ন হওয়া যায় না, তবে আগামীতে যেন ফাইট দিতে পারি, তাই এখন পরিকল্পনা। আমাদের মূল লক্ষ্য আসলে উন্নতি। আগের থেকে যেন ২০/৩০ শতাংশ উন্নতি নিয়ে বিশ্বকাপে লড়াই করতে পারি। আমরা এই প্রক্রিয়ার মাঝেই যাচ্ছি।

 


আরো সংবাদ


premium cement