২৮ মে ২০২২, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৬ শাওয়াল ১৪৪৩
`

গিবসনের জায়গায় আসবেন টেইট?

গিবসনের জায়গায় আসবেন টেইট? - ছবি : সংগৃহীত

নিউজিল্যান্ড সফর শেষ করে দেশে ফিরে গেছেন ওটিস গিবসন। বিসিবি নতুন চুক্তিতে সাড়া দেয়নি। ফলে বাংলাদেশের বোলিং কোচের পদের সীমা আর দীর্ঘায়িত হয়নি গিবসনের। এখব নতুন বোলিং কোচের সন্ধানে রয়েছে বিসিবি। এরই মাঝে এই পদে কাজ করতে বেশ আগ্রহ দেখিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার সাবেক গতি পেসার শন টেইট। ব্যাট-বলে মিলে গিলে গিবসনের জায়গায় আসতে পারেন তিনি।

শন টেইট এখন বাংলাদেশে। তার সামনে বিপিএল মিশন। তিনি চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের বোলিং কোচ। তবে তার চোখ বাংলাদেশের বোলিং কোচ পদের দিকে। যে পদটির জন্য তিনি প্রবল আগ্রহী। চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের একটি ভিডিও বার্তায় টেইট বলেছেন, ‘অবশ্যই আমি আগ্রহী। তাদের হাতে অবশ্য সময় আছে, কাকে বেছে নেবে। তবে অবশ্যই আমার জন্য দারুণ হবে (দায়িত্ব পেলে)।’

খেলোয়াড় হিসেবে বিপিএলে খেলেছেন টেইট। সেটাও চট্টগ্রাম কিংসে। এবার কোচের ভূমিকায় তিনি। এবারের বিপিএলে তারুণ্য নির্ভর দল গড়েছে চট্টগ্রাম। মুকিদুল ইসলাম, রেজাউর রহমান রাজা, মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরীর মতো উঠতি পেসাররা আছেন এই দলে। আছেন জাতীয় দলের হয়ে লাইমলাইটে আসা শরিফুল ইসলামও।

এই তরুণদের সাথে কাজ করতে আর তর সইছে না টেইটের। শুধু চট্টগ্রাম দল বলে নয়, বাংলাদেশ ক্রিকেটের জন্যই তরুণদের উঠে আসাকে দারুণ ইতিবাচক মনে করছেন তিনি। তার মতে, ‘এই মুহূর্তে বাংলাদেশের ক্রিকেটে বেশ কিছু ভালো তরুণ ক্রিকেটার আছে, যারা ভবিষ্যতে দুর্দান্ত ক্রিকেটার হয়ে উঠতে পারে। আমাদের দলে তাদের বেশ কজন আছে। শরিফুল যেমন, আগ্রাসী বাঁহাতি বোলার। আমাদের দলেরও গুরুত্বপূর্ণ অংশ হবে সে। নিজেকে তুলে ধরার মতো যথেষ্ট ক্রিকেট সে খেলে ফেলেছে এর মধ্যেই। তাদের সাথে কাজ করতে মুখিয়ে আমি। এমনিতেও বাংলাদেশের ক্রিকেটে তরুণ ফাস্ট বোলার ও ক্রিকেটার উঠে আসছে। আগামী ৫-৬ বছর বাংলাদেশ ক্রিকেটের জন্য হতে যাচ্ছে রোমাঞ্চকর।’

আসন্ন বিপিএলে নিজেদের পরিকল্পনা সম্পর্কে টেইট জানান, ‘ডেথ বোলিং নিয়ে কথা বলতে পছন্দ করি আমি। বিশেষ করে এখানে, এই মাঠে ডেথ বোলিং শেষ ৪-৫ ওভার আমাদের জন্য হতে যাচ্ছে দারুণ গুরুত্বপূর্ণ। আমার কৌশল হলো টুর্নামেন্ট জুড়ে সবকিছু সাধারণ ও গোছানো রাখা এবং আমাদের কৌশল ও ভাবনা থেকে সরে না যাওয়া। সাধারণ ও স্বচ্ছ পরিকল্পনা থাকবে।’

গত বছর বল হাতে দারুণ সময় কেটেছে মোস্তাফিজের। বাংলাদেশের বাঁহাতি এই পেসার ২০ ম্যাচে ১৭.৩৯ গড় ও ৭.০০ ইকোনমিতে শিকার করেছেন ২৮ উইকেট। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে ঘরের মাঠে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে তিনি ছিলেন দুরন্ত। রাজস্থান রয়্যালসের হয়ে আইপিএলে দারুণ সময় কাটে তার।


আরো সংবাদ


premium cement
‘হাউ টু মার্ডার ইওর হাজব্যান্ড’-এর লেখিকা নিজেই স্বামীর খুনে অভিযুক্ত! চীনকে থামাতে সামুদ্রিক নজরদারি পরিকল্পনা কোয়াডের করোনা ভাইরাস ‘ধরতে’ নদী-হ্রদ-নর্দমায় পরীক্ষা চালাচ্ছে উত্তর কোরিয়া! টেক্সাসের স্কুলে গুলি করে ২১ জনকে হত্যা : কী ঘটেছিল সেদিন? চট্টগ্রাম ফোরাম উত্তরা ঢাকার বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত আজ খোলা থাকবে ব্যাংক পদ্মা সেতু নির্মাণে লুটপাটের অভিযোগ কাল্পনিক : ওবায়দুল কাদের লেবার পার্টির সাথে বিএনপির বৈঠকে বৃহত্তর আন্দোলনে ঐকমত্য কাল থেকে জবি শিক্ষার্থীদের চক্রাকার বাস সার্ভিস বিরাটের স্বপ্নভঙ্গ, ফাইনালে রাজস্থান বাংলাদেশের রাজনৈতিক স্থিতিশীলতার প্রশংসা পর্তুগালের

সকল