৩০ নভেম্বর ২০২১, ১৫ অগ্রহায়ন ১৪২৮, ২৪ রবিউস সানি ১৪৪৩ হিজরি
`

১৩৫ দিন যাবত মেয়ের মুখ দেখেননি জয়াবর্ধনে

শ্রীলঙ্কার সাবেক অধিনায়ক মাহেলা জয়াবর্ধনে - ফাইল ছবি

দীর্ঘ ১৩৫ দিন যাবত নিজের মেয়েকে দেখেননি শ্রীলঙ্কার সাবেক অধিনায়ক মাহেলা জয়াবর্ধনে। দীর্ঘ দিন ধরে জৈব-সুরক্ষা বলয়ের মধ্যে থাকার কারণেই বিরক্ত তিনি। তবে এবার সময় এসেছে জৈব-সুরক্ষা বলয় ভেঙ্গে পরিবারের কাছে ফেরার।

চলমান টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাছাই পর্বে শ্রীলঙ্কার পরামর্শক হিসেবে দায়িত্ব পেয়েছিলেন জয়াবর্ধনে। বাছাই পর্ব শেষে এবার দেশে ফিরে যাচ্ছেন জয়াবর্ধনে।

আইপিএল শেষ হওয়ার পরই শ্রীলঙ্কা দলের সাথে যোগ দেন জয়াবর্ধনে। বাছাই পর্ব পেরিয়ে শ্রীলঙ্কা এখন সুপার টুয়েলভে। আইপিএল ও জাতীয় দলের সাথে থাকায় দীর্ঘ দিন জৈব বলয়ের মধ্যে থাকতে হয়েছে জয়াবর্ধনেকে। এতে চার মাসের বেশি মেয়েকে দেখেননি জয়বর্ধনে।

জয়বর্ধনে বলেন, ‘জুন মাস থেকে জৈব বলয় ও নিভৃতবাসে রয়েছি। আর থাকতে পারছি না। আমি দলকে আমার সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছি। তারা আমার কথা বুঝেছে। ১৩৫ দিন ধরে আমি মেয়ের মুখ দেখিনি। একজন বাবার পক্ষে এভাবে থাকা খুব কঠিন। তাই আমি দেশে ফিরছি।’

বাছাই পর্বে দলের সাথে থাকাকালীন খেলোয়াড়দের সাহস দিয়েছেন জয়াবর্ধনে। খেলোয়াড়দের কিছু সমস্যা দূর করেছেন, যা দলের জন্য সহায়ক হয়েছে। জয়াবর্ধনে বলেন, ‘শ্রীলঙ্কার এই দলটি তারুণ্য নির্ভর। তাই বেশির ভাগ ক্রিকেটারের মনে সামান্য ভয় ছিল। সেটাই দূর করার চেষ্টা করেছি। কারণ বিশ ওভারের খেলায় ভয় পেলে চলবে না। দলের বোলিং বিভাগ যথেষ্ট শক্তিশালী। ব্যাটারদের কিছুটা উন্নতির জায়গা ছিল। সবার সাথে আলাদা করে কথা বলেছি। আশা করছি নিজেদের সেরাটা দিতে পারবে তারা।’

জাতীয় দলের সাথে স্বল্প মেয়াদে হলেও শ্রীলঙ্কা যুবদলের সাথে পাঁচ মাসের জন্য পরামর্শক ও মেন্টর হিসেবে দায়িত্ব পেয়েছেন জয়াবর্ধনে। আগামী বছর ওয়েস্ট ইন্ডিজে অনুষ্ঠিত হবে যুবাদের বিশ্বকাপ। বিশ্বকাপকে সামনে রেখে যুবদলকে গড়ে তুলবেন তিনি।
সূত্র : বাসস



আরো সংবাদ