১২ এপ্রিল ২০২১
`

সুজনকে ক্ষমা চাইতে লিগ্যাল নোটিশ

সুজনকে ক্ষমা চাইতে লিগ্যাল নোটিশ - ছবি : সংগৃহীত

ঘটনা গত মাসের। কক্সবাজারে সাবেক তারকাদের নিয়ে হয়েছিল লিজেন্ডস চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি। সেই মিলনমেলায় ঘটেছিল অনভ্রেত ঘটনা। বাংলাদেশ জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক রকিবুল হাসানকে মারতে উদ্যত হয়েছিলেন আরেক সাবেক ক্রিকেটার খালেদ মাহমুদ সুজন। সময়ের সাথে সাথে মনে হচ্ছিল বিষয়টি আড়ালে চলে গেছে। কিন্তু না, হুট করে আবার আলোচনায় রকিবুল-সুজন।

রকিবুল হাসানকে মারতে যাওয়া খালেদ মাহমুদ সুজনকে ক্ষমা চাওয়ার জন্য লিগ্যাল নোটিশ পাঠানো হয়েছে। আগামী সাত দিনের মধ্যে ক্ষমা না চাইলে মামলা করা হবে বলে নোটিশে জানানো হয়েছে। রোববার রকিবুল হাসানের পক্ষে এই নোটিশ পাঠান আইনজীবী মো: আবু তালেব।

নোটিশ পাঠানোর বিষয়টি নিয়ে আবু তালেব জানান, ‘গত ২০ ফেব্রুয়ারি কক্সবাজার শেখ কামাল আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে দেশের সাবেক কিংবদন্তি ক্রিকেটারদের নিয়ে লিজেন্ডস চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি আয়োজিত হয়। সেখানে অপ্রত্যাশিত একটি ঘটনাকে কেন্দ্র করে ক্রিকেটার রকিবুল হাসানকে মারতে তেড়ে যান ক্যাসিনোকাণ্ডে সমালোচিত খালেদ মাহমুদ সুজন।’

গত ২০ ফেব্রুয়ারির ঘটনা। মাঠে খেলা চলছিল। হঠাৎ কিছু বুঝে ওঠার আগেই দেখা যায় খালেদ মাহমুদ সুজন তেড়ে যাচ্ছেন রকিবুল হাসানের দিকে। এমন কাণ্ডে সবাই হতভম্ব হয়ে যয়। দ্রুত এগিয়ে এসে অনেকেই সুজনকে থামানোর চেষ্টা করেন। তারপরও সুজন রাগ আটকাতে পারেননি। উপড়ে ফেলেন মাঠের পাশে থাকা স্পনসর প্রতিষ্ঠানের ছোট্ট ছাউনি।

বিষয়টি নিয়ে ম্যাচটির রেফারি রকিবুল হাসান তখন জানিয়েছিলেন, ‘অন্য জায়গায় খেলা নিয়ে হয়েছে। যেহেতু আমি টেকনিক্যাল কমিটির চেয়ারম্যান। আইনের মধ্যে যা আছে তা-ই। কিন্তু হ্যাঁ, আমার হতাশা লেগেছে (সুজন মারমুখী হওয়ায়), আমি হতাশ। কিন্তু এ নিয়ে আমি কথা বলবো না। আমার এটা নিয়ে কিছু বলার নেই।’ পরের দিন বিসিবির পরিচালক সুজন বলেন, ‘এই প্রসঙ্গে নো কমেন্টস।’



আরো সংবাদ