২৩ এপ্রিল ২০২১
`

ঘরোয়া ক্রিকেটে চোখ মাশরাফির

ঘরোয়া ক্রিকেটে চোখ মাশরাফির -

বাংলাদেশ দলের হয়ে সর্বশেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছেন এক বছর আগে। মাঝে বঙ্গবন্ধু টি-২০ কাপে অংশ নিলেও এখন ক্রিকেটের বাইরে আছেন তিনি। অবসর না নিয়ে ধরে রেখেছেন ক্রিকেটার সত্ত্বা। অবসর নিয়ে এখনো কোনো চিন্তা-ভাবনা নেই মাশরাফি বিন মুর্তজার। বরং চোখ রাখছেন ঘরোয়া ক্রিকেটে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় মাঠে মুজিববর্ষ অমর একুশে ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ফাইনালে প্রধান অতিথি হিসেবে আসা মাশরাফি বলেন, ‘ঘরোয়া ক্রিকেট তো খেলছিই। করোনার জন্য যেহেতু খেলাধুলা হচ্ছে না, তাই মনে হয় না কারো কাছে কোনো পরিকল্পনা আছে। ব্যক্তিগতভাবে প্রতিটা খেলোয়াড় নিজের মতো করে প্রস্তুতি নিচ্ছে। সামনে ঘরোয়া ক্রিকেট শুরু হওয়ার কথা। এনসিএল হচ্ছে। তারপর দেখা যাক।’

২০১৯ ওয়ানডে বিশ্বকাপের আগে গুঞ্জন ছিল টুর্নামেন্ট খেলেই অবসরে যাবেন মাশরাফি। কিন্তু হয়নি। ২০২০ সালের মার্চে ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়ে সিরিজেও বিদায়ের ঘোষণা দেননি ৩৮ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার। ছেড়েছেন শুধু অধিনায়কের দায়িত্ব। তারপর বঙ্গবন্ধু টি-২০ কাপে মাঝের দিকে মাঠে নেমে সফলতাও পান এবং দলকে শিরোপা জেতাতে ভূমিকা রাখেন। তারপরও ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও নিউজিল্যান্ড সিরিজের স্কোয়াডে নাম ওঠেনি তার।

বাংলাদেশের সবশেষ নিউজিল্যান্ড সফরে ওয়ানডে অধিনায়ক ছিলেন মাশরাফিই। তাই এই দলকে চেনেন পুরোটাই। জানেন দলের চরিত্রও।

মাশরাফি জানালেন, ‘আমরা সবাই জানি, নিউজিল্যান্ড খুবই কঠিন। সাথে সাকিব নেই, খুবই কঠিন হবে। যাওয়ার আগে যে মানসিকতা ওরা দেখিয়েছে, তা খুবই ইতিবাচক। আমার বিশ্বাস, দল ভালো করবে। কিন্তু, আমার মনে হয় না দলকে অপ্রয়োজনীয় চাপ দেয়া উচিত।’

মাশরাফি যোগ করেন, ‘ওরা যদি মন খুলে খেলতে পারে, তাহলে অবশ্যই ভালো খেলবে। আমাদের সমস্যা হচ্ছে, খেলোয়াড়দের ওপর অযথা চাপ সৃষ্টি করে দেই। ওই চাপটা কমিয়ে আনতে হবে, ক্রিকেট বোর্ড থেকে, নির্বাচক বলেন কিংবা আমরা দর্শক যারা আছি। ওদেরকে সমর্থন করাটা খুব গুরুত্বপূর্ণ।



আরো সংবাদ