২৩ এপ্রিল ২০২১
`

মিঠুনের চোখে চ্যালেঞ্জিং সফর

মোহাম্মদ মিঠুন - ফাইল ছবি

অস্ট্রেলিয়া-ভারত-ইংল্যান্ড, বড় বড় সব দলের জন্যই নিউজিল্যান্ড সফর চ্যালেঞ্জিং। সেখানে বাংলাদেশের বেলায় এই দেশটিতে সফর আরো দুরুহ, তা বলাই বাহুল্য। এখন পর্যন্ত নিউজিল্যান্ডের মাটিতে ক্রিকেটের কোনো সংস্করণেই জয় নেই বাংলাদেশের। এবার অধরা সেই জয়ের দিকে পাখির চোখ করে তাকিয়ে আছে টিম বাংলাদেশ।

বাংলাদেশ টিম এই মুহূর্তে রয়েছে ক্রাইস্টচার্চে। পার করেছে এক সপ্তাহের কোয়ারেন্টাইন। করোনা নেগেটিভ আসায় বুধবার প্রথমবারের মতো জিম সেশন করেছেন তামিমরা। বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হবে ছোট গ্রুপ হয়ে অনুশীলন।

বুধবার দ্বিতীয় দফা করোনাভাইরাস পরীক্ষায় নেগেটিভ আসার পর কথা বলেন মোহাম্মদ মিঠুন। যেখানে তিনি বলেন, ‘এখানে খেলাটা চ্যালেঞ্জিং। কারণ এখানকার কন্ডিশন আমাদের থেকে অনেক ভিন্ন। এ ধরনের কন্ডিশনে সব সময় খেলার সুযোগ হয় না। সবাই জানে নিউজিল্যান্ডে নতুন বলটা খুব বেশি চ্যালেঞ্জিং হয়। নতুন বলটা যদি ভালো করে সামলাতে পারি তাহলে আশা করছি আগের চেয়ে অনেক ইতিবাচক ফল আসবে।’

কোয়ারেন্টাইনের কারণে এবার বেশ আগে নিউজিল্যান্ড গেছে দল। একদিক থেকে বিষয়টি বাংলাদেশের জন্য ভালোই হয়েছে। বিশেষ করে কন্ডিশনের সাথে মানিয়ে নেয়াটা হচ্ছে ভালোমতো, যা কাজে দেবে টুর্নামেন্টে। মিঠুন বলেন, ‘এটাকে আমরা অবশ্যই সুযোগ হিসেবে নিচ্ছি। আগে কি হয়ে গেছে সেটার চেয়ে সামনে কি করব সেটা নিয়ে ভাবছি, আর যেহেতু এবার অনেকদিন আগে এসেছি। অনেক অনুশীলন সুবিধা পাব। দলের সবাই চেষ্টা করব।’

তিনি আরো বলেন, ‘এখনকার আবহাওয়া খুবই ভালো। এরকম আবহাওয়া থাকলে সমস্যা হবে না। আর ১৪ দিন পর আমাদের যে স্বাভাবিক চলাফেরা শুরু হবে এটা অবশ্যই ইতিবাচক দিক। সবাই এটা উপভোগ করবে। কারণ গত এক বছর ধরে আমরা এই কোভিডের মধ্যে আছি। বাংলাদেশেও যতগুলো টুর্নামেন্ট হয়েছে হোটেল থেকে বের হওয়ার সুযোগ হয়নি। এখানে ভিন্ন, ১৪ দিন পরে আমরা একদম স্বাধীন চলাচল করতে পারব। সেটা ভেবে ভালো লাগছে। ১৪ দিন কষ্ট হলেও তারপরে আমরা বেশ মুক্তভাবে স্বাভাবিক জীবনযাপন করতে পারব।’



আরো সংবাদ