২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১
`

সাকিব-কাণ্ডে হতাশ পাপন

সাকিব-কাণ্ডে হতাশ হয়েছেন পাপন। - ফাইল ছবি

জাতীয় দলের খেলা বাদ দিয়ে সাকিব খেলবেন আইপিএল। গত কয়েকদিনে এই ঘটনা নিয়ে উত্তাল ক্রিকেট পাড়া। বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন সাকিব বিষয়ে প্রথমবারের মতো গণমাধ্যমে কথা বললেন সোমবার। যেখানে তিনি উল্লেখ করেন, সাকিব-কাণ্ডে তিনি হতাশ।

বিসিবি সভাপতি কিছু আভাস দিলেন কেন্দ্রীয় চুক্তি প্রসঙ্গে। যেখানে কিছু বিষয় যুক্ত করবে বিসিবি। যাতে ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেট টুর্নামেন্টগুলো ঝামেলা করতে না পারে। তবে কী যুক্ত হবে, তা খোলাসা করেননি পাপন।

আগামী এপ্রিলে শ্রীলঙ্কার মাটিতে সাকিবের টেস্ট না খেলা প্রসঙ্গে পাপন বলেন, ‘সাকিবের সিদ্ধান্তে যে হতাশ হয়েছি, এটা অস্বীকার করার কোনো কারণ নেই। এর আগেও এমন হয়েছে। আমাদের অবস্থান পরিষ্কার, আমরা কাউকে জোর করে খেলাবো না। কেউ যদি খেলতে না চায়, তাহলে সে খেলবে না। আমরা চাই নিজেদের সিদ্ধান্ত ওরা নিজেরা নিক।’

কেন্দ্রীয় চুক্তি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘চুক্তিতে কিছু বিষয় পরিষ্কার থাকবে। যাতে পরে কে খেলবে, খেলবে না এ নিয়ে সমস্যা তৈরি না হয়। যেগুলো চুক্তিতে সই করার আগেই বলে দেয়া থাকবে।’

সাকিবের মতো একজন ক্রিকেটারের কাছ থেকে এই সিদ্ধান্ত আসায় কতখানি বিব্রত আপনারা? এমন প্রশ্নের জবাবে বোর্ডপ্রধান বলেন, ‘আমরা বিব্রত নই। তবে আমাদের সবার মন খারাপ হয়েছে।’

তবে এরপরই বিসিবি সভাপতির কণ্ঠে ঝড়ে পড়ে আক্ষেপ, ‘দেখেন একজন খেলোয়াড়ের পেছনে আমাদের বিনিয়োগ তো কম নয়। সবকিছু মিলিয়ে একজন খেলোয়াড়ের পেছনে যা ব্যয় হয়, তা তো আগে কল্পনা করাও যেত না। এই জায়গাতে এই রকম দুটি টেস্ট ম্যাচ হারের পরও সাকিব কীভাবে এমন সিদ্ধান্ত নেয়, সেটা আমার চিন্তাও আসে না। আমার ধারণা ছিল সবাই পরের টেস্টটা জয়ের জন্য উদগ্রীব হয়ে থাকবে। সেই জায়গা থেকে যদি কেউ বলে আমি টেস্ট খেলবো না, ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ খেলবো। তাহলে আসলে আমাদের করার কিছুই থাকে না। আমাদের পরিষ্কার কথা, কাউকে আমরা জোর করে খেলাবো না।’

সাকিব ইস্যুতে বোর্ডপ্রধান আরো বলেছেন, ‘আজকে যেসব খেলোয়াড়রা তারকা হয়েছেন, প্রথম ৬-৭ বছরে তাদের গড় কত ছিল। খেলতে খেলতেই তো তারা আজকের অবস্থানে পৌঁছেছেন। যখন তাদের সার্ভিস আমাদের পাওয়ার কথা, তখন তারা দলের কথা চিন্তা করছে না। সেটা তো অবশ্যই হতাশাজনক।’



আরো সংবাদ