০২ ডিসেম্বর ২০২০

আইপিএল নিয়ে কী ভাবছেন জাহানারা-সালমা

আইপিএল নিয়ে কী ভাবছেন জাহানারা-সালমা - ছবি : সংগৃহীত

নভেম্বরে অনুষ্ঠেয় নারী আইপিএলে দ্বিতীয়বারের মতো খেলতে যাচ্ছেন বাংলাদেশের জাহানারা আলম। প্রথমবারের মতো অভিজ্ঞতা হতে যাচ্ছে পেসার সালমা খাতুনের। গত আসরে ভেলোসিটির হয়ে খেলেছিলেন জাহানারা। এবারও সেই দলেই খেলবেন তিনি। তবে সালমার দল ট্রেইল ব্লেজার্স। আইপিএল উপলক্ষ্যে নিজ দেশে প্রস্তুতি সারছেন বাংলাদেশের দুই নারী ক্রিকেটার।

মঙ্গলবার এক ভিডিও বার্তায় জাহানারা ও সালমা জানিয়েছেন তাদের আইপিএল ভাবনা ও লক্ষ্য। দুজনেরই এক লক্ষ্য, সেরাটা দেয়া। সাথে দেশের নাম উজ্জ্বল করা। দ্বিতীয়বারের মতো আইপিএল খেলতে যাওয়া জাহানারা আলম বলেন, ‘দ্বিতীয়বারের মত আইপিএল খেলতে যাচ্ছি। এবং আমি খুবই খুশি যে আবারও ভেলোসিটির হয়ে খেলার সুযোগ পেয়েছি। গতবারের অভিজ্ঞতাটা কাজে লাগানোর চেষ্টা করবো এবার। এবং নিজের শতভাগ দিয়ে দলের জয়ে অবদান রাখতে চেষ্টা করবো।’

নিজের প্রস্তুতি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ প্রস্তুতি অনেক ভালো হয়েছে। বর্তমান পরিস্থিতিতে বিসিবি আমাদের যে সুযোগ সুবিধা প্রদান করেছে বিশেষ করে আইপিএলকে সামনে রেখে দুইটা ফ্লাড লাইটের নিচে অনুশীলন সেশন প্রদান করেছে। কোচ প্রদান করেছে, বিশেষ করে বোলিং কোচ হওয়ায়, মাহুব আলি জ্যাকি স্যারের সাথে কাজ করতে পেরে আমার জন্য ভালো হয়েছে। আশা করছি আইপিএলের মূল ম্যাচে উপযুক্ত প্রয়োগ করতে পারবো ইনশাআল্লাহ।’

আইপিএল বড় আসর। সেখানকার অভিজ্ঞতাও ভিন্ন। যা সব টুর্নামেন্টে হয় না। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আইপিএল একটা বড় প্ল্যাটফর্ম, আমার মনে হয় এখানে খেলার সৌভাগ্য সবার হয় না। আমি অনেক ভাগ্যবান এ দিক থেকে। এ ধরণের প্ল্যাটফর্মে বিশ্বের অনেক সেরা, বিশ্ব জয়ীদের সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করা সুযোগ হয়। তাদের সাথে ড্রেসিং রুম শেয়ার করার সুযোগ হয়। আমি আশা করি এই অভিজ্ঞতা ওখান থেকে অর্জন করে দেশে এসে আমার সতীর্থদের সাথে ভাগাভাগি করতে পারবো। আমার বিশ্বাস এই টুর্নামেন্ট খেলার পর আমার ক্যারিয়ারের কয়েক ধাপ এগিয়ে যাবো।’

নিজের লক্ষ্য নিয়ে জাহানারা বলেন, ‘একটা লক্ষ্য নিয়েই মাঠে নামি, নিজের সেরাটা দিয়ে ভালো খেলতে হবে। এবং দলের জন্য অবদান রাখা। সুতরাং এবারও একই লক্ষ্য। গতবার আমরা চ্যাম্পিয়ন হওয়ার দ্বারপ্রান্তে গিয়েও হতে পারিনি। নিজেরও আফসোস রয়ে গেছে, ফাইনাল ম্যাচের ফাইনাল ওভারটা। এই ধরণের পরিস্থিতিতে আবার পড়লে নিজের সেরাটা দিয়ে দলের জয়ে অবদান রাখতে হার্ড অ্যান্ড সোল ট্রাই করবো।’

অন্যদিকে প্রথমবারের মতো নারী আইপিএলে খেলতে যাচ্ছেন পেসার সালমা খাতুন। নিজেকে ভাগ্যবান মনে করছেন তিনি। সালমা বলেন, ‘অবশ্যই আইপিএলে সুযোগ পেয়ে খুশি লাগছে এবং ভাগ্যবানও মনে হচ্ছে এতবড় আসরে খেলতে যাব। তো অবশ্যই চেষ্টা করবো আইপিএলে গিয়ে নিজের পারফরম্যান্সটা শো করার জন্য। প্রস্তুতি মোটামুটি ভালো হয়েছে। যেহেতু খুলনায় বসে শুনেছি সেখানে অনুশীলন করেছি। জিম, রানিং, ফিটনেস নিয়ে কাজ করেছি। ঢাকায় এসে যে কয়দিন সুযোগ পেয়েছি সে কয়দিনও নিজেকে প্রস্তুত করতে আমরা অনুশীলন করেছি। ক্রিকেট বোর্ড আমাদের সুযোগ দিয়েছে ডে-নাইট অনুশীলন করার, মোটামুটি ভালো কাজে লেগেছে। প্রস্তুতিটা মোটামুটি অনেক ভালো হয়েছে।’

তিনি আরো বলেন, ‘প্রত্যাশাটা অনেক ভালো করার যাতে বাংলাদেশের নাম উজ্জ্বল করতে পারি। যেহেতু অলরাউন্ডার হিসেবে যাচ্ছি সেহেতু দুই বিভাগেই ভালো করা চেষ্টা থাকবে। আমি যদি ভালো কিছু করতে পারি তবে অবশ্যই আমার দলের জন্য সহায়ক হবে। ওখান থেকে আসার পর দেশেও কাজে লাগাবো। যেহেতু ওখানে যাচ্ছি বাইরের অনেক প্লেয়ার থাকবে, বড় বড় প্লেয়ার তাদের কাছ থেকে অনেক কিছু শেখার আছে সেগুলো শিখে এসে আমাদের দেশে এপ্লাই করার চেষ্টা করবো।’

আগামী মাসের শুরুতে নারী আইপিএল অনুষ্ঠিত হবে সংযুক্ত আরব আমিরাতে। টুর্নামেন্ট শুরুর আগে দুবাইয়ে হোটেলে বায়ো সিকিউর বাবলে রাখা হবে তিন দলের সব ক্রিকেটারকে। প্রথম রাউন্ডের ম্যাচ তিনটি হবে যথাক্রমে ৪, ৫ ও ৭ নভেম্বর। চার ম্যাচের এই টুর্নামেন্টের ফাইনাল ৯ নভেম্বর। সব ঠিক থাকলে বুধবার আরব আমিরাতের উদ্দেশ্যে রওনা দেবেন বাংলাদেশের দুই নারী ক্রিকেটার।


আরো সংবাদ