১৪ আগস্ট ২০২০

দুইবারের ডাকেও মাশরাফিকে কেনেনি কোনো দল

24tkt

বিপিএলের প্লেয়ার্স ড্রাফটের প্রথম রাউন্ডে দুই বারের ডাকেও কোনো দলে ডাক পেলেন না বাংলাদেশ দলের ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা।

বিপিএল ইতিহাসের সবচেয়ে সফল অধিনায়ক এবার প্রথম ১৪ পছন্দের ক্রিকেটারের তালিকাতেও সুযোগ পেলেন না।

নির্ধারিত সময়ের প্রায় পঞ্চাশ মিনিট পর শুরু হওয়া বিপিএল প্লেয়ার্স ড্রাফটের প্রথম সেট শেষে দুইজন করে স্থানীয় খেলোয়াড় দলভুক্ত করার সুযোগ পেয়েছে অংশগ্রহণকারী দলগুলো। যেখানে ‘সি’ গ্রেড থেকেও খেলোয়াড় দলে নেয়া হয়েছে। অথচ মাশরাফিকে নেয়নি কেউ।

বঙ্গবন্ধু বিপিএল প্লেয়ার্স ড্রাফটের জন্য ‘এ’ প্লাস ক্যাটাগরিতে রাখা হয়েছে মোট চারজন ক্রিকেটারকে। মাশরাফি বিন মুর্তজা, মুশফিকুর রহীম, তামিম ইকবাল এবং মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে।

মাশরাফির সঙ্গে এ+ গ্রেডে থাকা অন্য তিন ক্রিকেটার মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মুশফিকুর রহীম ও তামিম ইকবাল দল পেয়েছেন প্রথম ডাকেই। লটারির মাধ্যমে প্রথম ডাকের সুযোগ পেয়ে মুশফিককে দলে নিয়ে নেয় খুলনা টাইগার্স।

একে একে নিজেদের প্রথম ডাকে যথাক্রমে ঢাকা প্লাটুন তামিম ইকবাল, রাজশাহী রয়্যালস লিটন কুমার দাস, চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, রংপুর রেঞ্জার্স মোস্তাফিজুর রহমান, কুমিল্লা ওয়ারিয়র্স সৌম্য সরকার এবং সিলেট থান্ডার্স নিয়েছে মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতকে।

ধারণা করা হয়েছিল, হয়তো প্রথম সেটের দ্বিতীয় ডাকে মাশরাফিকে নেবে কোনো দল; কিন্তু এবার প্রথমে খেলোয়াড় নেয়ার সুযোগ পাওয়া সিলেট দলে নেয় মোহাম্মদ মিঠুনকে।

এছাড়া কুমিল্লায় আল আমিন, রংপুরে নাইম শেখ, চট্টগ্রামে ইমরুল কায়েস, রাজশাহীতে আফিফ হোসেন ধ্রুব, ঢাকায় এনামুল হক বিজয় এবং খুলনায় সুযোগ পেয়েছেন শফিউল ইসলাম।

তবে অংশগ্রহণকারী দলগুলো এখনও চাইলে নিতে পারবে মাশরাফিকে। সেক্ষেত্রে অপেক্ষা করতে হবে পরবর্তী সেটের ড্রাফট শুরু হওয়া পর্যন্ত।

খুলনা টাইগার্স : মুশফিকুর রহীম (এ +) , শফিউল ইসলাম (বি),

ঢাকা প্লাটুন : তামিম ইকবাল (এ +), এনামুল হক বিজয় (বি),

রাজশাহী রয়েলস : লিটন দাস (এ), আফিফ হোসেন ধ্রুব (বি),

চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স : মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (এ +), ইমরুল কায়েস (এ),

রংপুর রেঞ্জার্স : মোস্তাফিজুর রহমান (এ), নাইম শেখ (সি),

কুমিল্লা ওয়ারিয়র্স : সৌম্য সরকার (এ), আল আমিন হোসেন সিনি. (সি),

সিলেট থান্ডার্স : মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত (এ), মোহাম্মদ মিঠুন (এ),

আগামী ১১ ডিসেম্বর বিপিএল শুরুর তিন দিন আগে ৮ ডিসেম্বর টুর্নামেন্ট উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে এবার বিশেষ বিপিএল হতে যাচ্ছে। এবার কোনও ফ্র্যাঞ্চাইজি নেই। বিপিএলের আয়োজন ও দল ব্যবস্থাপনা সবই করবে বিসিবি।


আরো সংবাদ