০৪ এপ্রিল ২০২০

ভেবেছিলাম কোহলিই সেরা, কিন্তু স্মিথ...

দীর্ঘ ১৬ মাস পর সাদা পোশাকের দলে ফিরলেন স্টিভেন স্মিথ। ১২ মাসের নির্বাসন কাটিয়ে অ্যাশেজই ছিল তার প্রথম টেস্ট সিরিজ। আর মাঠে ফিরেই এখন ক্রিকেট বিশ্বে আলোচনার কেন্দ্রে একুট নাম স্মিথ। এতটা কঠিন সময় পার করে দলে ফিরে যে চমক দিয়েছেন তা দেখে রীতিমতো অবাক ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা। সেই ধারাবাহিকতায় ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি এবং স্মিথকে নিয়ে চলছে  তুলনা।

কে এগিয়ে, কে পিছিয়ে? কিন্তু সাময়িকভাবে বিরাটকে ছাপিয়ে গেছেন স্মিথ তার ধারাবাহিকতা দিয়ে। তাচতুর্থ টেস্টে প্রথম ইনিংসে ডবল সেঞ্চুরির পর দ্বিতীয় ইনিংসে ৯২ বলে ৮২ রান করেছেন তিনি। যার ফলে এক ম্যাচে বাকি থাকতে অস্ট্রেলিয়া ২-১-এ সিরিজে এগিয়ে গিয়েছে। দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়িয়ে ইতিমধ্যেই পাঁচ ইনিংসে ঝুলিতে পুড়ে নিয়েছেন ৬৭১ রান এই চলতি অ্যাশেজে। অস্ট্রেলিয়ার কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গার যার পর তাকে বিরাটের থেকে এগিয়ে রাখতে দ্বিতীয়বার ভাবছেন না। সদ্য টেস্ট ক্রিকেট র‍্যাঙ্কিংয়ে এই স্টিভ স্মিথের কাছে শীর্ষ স্থান হারিয়েছেন ভারতীয় অধিনায়ক।

ল্যাঙ্গার বলেন, ‘‘আমি ভাবতাম আমার দেখা সেরা ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলি, কারণ ও যেভাবে খেলে। কিন্তু স্টিভ স্মিথের উচ্চতা আলাদা পর্যায়ের।''

তিনি এর সঙ্গে জুড়ে দেন, ‘‘ও সমস্যার সমাধান করতে পারে। ওর খেলার জন্য খিদে এরকম আর কারও মধ্যে দেখি‌নি।'' ল্যাঙ্গার  প্যাট কামিন্সেরও প্রশংসা করতে ভোলেননি।  আইসিসি টেস্ট বোলিং র‍্যাঙ্কিংয়ে এখন তিনিই শীর্ষে রয়েছেন।

তিনি বলেন, ‘‘আমরা বিশ্বের সেরা ফাস্ট বোলারকে (প্যাট কামিন্স) আমাদের দলে পেয়েছি। এবং বিশ্বের সেরা টেস্ট ব্যাটসম্যানও আমাদের দলেই রয়েছে।''


আরো সংবাদ

আত্মহত্যার আগে মায়ের কাছে স্কুলছাত্রীর আবেগঘন চিঠি (১৩৫৩০)সিসিকের খাদ্য ফান্ডে খালেদা জিয়ার অনুদান (১২৬০৬)করোনা নিয়ে উদ্বিগ্ন খালেদা জিয়া, শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল (৯৩১৫)ভারতে তাবলিগিদের 'মানবতার শত্রু ' অভিহিত করে জাতীয় নিরাপত্তা আইন প্রয়োগ (৮৪৯০)করোনায় নিশ্চিহ্ন হয়ে গেল ইতালির একটি পরিবার (৭৮৬৪)করোনার মধ্যেও ইরান-যুক্তরাষ্ট্র আরেক যুদ্ধ (৭১৪০)করোনায় আটকে গেছে সাড়ে চার লাখ শিক্ষকের বেতন (৬৯৩১)ইসরাইলে গোঁড়া ইহুদির শহরে সবচেয়ে বেশি করোনার সংক্রমণ (৬৮৯০)ঢাকায় টিভি সাংবাদিক আক্রান্ত, একই চ্যানেলের ৪৭ জন কোয়ারান্টাইনে (৬৭৬১)করোনাভাইরাস ভয় : ইতালিতে প্রেমিকাকে হত্যা করল প্রেমিক (৬২৯৬)