১৩ আগস্ট ২০২০

হারের ডাবল হ্যাটট্রিক : চরম লজ্জায় বিরাট বাহিনী

বিরাট কোহলি - সংগৃহীত
24tkt

দ্বাদশ আইপিএলে হারের ডাবল হ্যাটট্রিক করে ফেলল বিরাট কোহলির রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু। পর পর ছ’টি ম্যাচ হেরে কার্যত খেতাব জেতার দৌড় থেকে ছিটকে গেল রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু। রোববার ঘরের মাঠে আরসিবি ৩ উইকেটে পরাস্ত হলো দিল্লি ক্যাপিটালসের কাছে।

প্রথমে ব্যাট করে দিল্লির সামনে ১৫০ রানের লক্ষ্যমাত্রা রেখেছিলেন বিরাট কোহলি। বিরাট কোহলি ছাড়া আর কেউই ব্যাট হাতে দাঁড়াতে পারেননি বেঙ্গালুরুর হয়ে। বেঙ্গালুরুর বোলাররাও ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতা ঢাকতে ব্যর্থ। যার ফলে সহজেই জয় তুলে নিলো দিল্লি। সাত বল বাকি থাকতেই ছয় উইকেট হারিয়ে ১৫২ রান তুলে নিলো দিল্লি ক্যাপিটালস।

ঘরের মাঠে আরো একটা সুযোগ নষ্ট করলেন বিরাটরা। । টানা হারে বিধ্বস্ত রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর সামনে জেতা ছাড়া আর কোনো উপায় ছিল না। ঘরের মাঠে কলকাতা নাইটদের বিরুদ্ধে জয়ের খুব কাছ থেকে ফিরতে হয়েছিল একমাত্র আন্দ্রে রাসেলের বিধ্বংসী ব্যাটিংয়ের দৌলতে। সেই জ্বালা এখনো জুড়োয়নি বিরাট, ডিভিলিয়ার্সদের। তার মধ্যেই আবার হার। এই নিয়ে ছয় ম্যাচে হারের মুখ দেখল তারা।

টস জিতে বেঙ্গালুরুকে প্রথমে ব্যাট করতে পাঠান দিল্লি অধিনায়ক শ্রেয়াস আয়ার। র‍য়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর হয়ে ওপেন করতে নেমেছেন বিরাট কোহলি ও পার্থি প্যাটেল। কিন্তু আগের মতোই ভরসা দিতে পারেননি পার্থিব। ৯ বলে ৯ রান করে ক্রিস মরিসের বলে লামিচানেকে ক্যাচ দিয়ে প্যাভেলিয়নে ফিরে যান তিনি। তিন নম্বরে ব্যাট করতে নেমেছেন এবি ডি ভিলিয়ার্স। গত ম্যাচে এই দু'জনের ব্যাটেই বড় রান তুলেছিল বেঙ্গালুরু। এ দিনও তার পুনরাবৃত্তির অপেক্ষায় বেঙ্গালুরুর জনতা। ৫ ওভারের শেষে আরসিবি ৩৬-১।

কলকাতার বিরুদ্ধে যেভাবে ব্যাট হাতে বিরাটের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন এবি ডিভিলিয়ার্স সেটা এদিন আর পারলেন না। রাবাডার বলে ইনগ্রামকে ক্যাচ দিয়ে ১৬ বলে ১৭ রান করে আউট হয়ে গেলেন তিনি। বিরাটের সঙ্গে ব্যাট করতে নেমেছেন মার্কাস স্তইনিস। কিন্তু ভরসা দিতে পারলেন না তিনিও। ১৭ বলে ১৫ রান করে আউট হয়ে গেলেন তিনি। ১৩ ওভারের শেষে আরসিবি ৮৩-৩।

ব্যাট করছেন বিরাট কোহলি ও মইন আলি। সাময়িক ভরসা দিলেন মইন আলি ঠিকই কিন্তু দলকে বড় রানে নিয়ে যাওয়ার পথ দেখাতে পারলেন না। ১৮ বলে ৩২ রান করে লামিচানের বলে পন্থকে ক্যাচ দিয়ে ফিরে গেলেন তিনি। উল্টোদিকে সেই একা দাঁড়িয়ে বিরাট কোহলি। ১৫ ওভারের শেষে আরসিবি ১০৮-৪।

অক্ষদীপ ১৯ ও পবন নেগি কোনো রান না করেই ফিরে যান প্যাভেলিয়েন। বিরাটও আউট হয়ে যান ৩৩ বলে ৪১ রানে। চার উইকেট নিলেন রাবাডা। ২০ ওভারে আট উইকেট হারিয়ে ১৪৯ রানে শেষ থামল রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু। দিল্লির সামনে ১৫০ রানের টার্গেট।

১৫০ রানের লক্ষ্যে নেমেই আউট হয়ে গেলেন দিল্লির ওপেনার শিখর ধাওয়ান। খেললেন মাত্র এক বল। রানের খাতা খুলতে পারলেন না। সাউদির বলে নভদীপকে ক্যাচ তুলে দিলেন। পৃথ্বীর সঙ্গে ব্যাট করতে নেমেছেন শ্রেয়াস আয়ার। পাঁচ ওভারে দিল্লি ৪৭-১।

২২ বলে ২৮ রান করে আউট হলেন পৃথ্বী শ। এর পর দলের হাল ধরলেন অধিনায়ক শ্রেয়াস আয়ার। তার সঙ্গে রয়েছেন কলিন ইনগ্রাম। ১০ ওভারের শেষে দিল্লি ৮০-২। ২২ রান করে আউট হয়ে গেলেন ইনগ্রাম। ১৫ ওভারে দিল্লি ১২৩-৩। শ্রেয়াসের সঙ্গে ব্যাট করছেন ঋষভ পন্থ। ৫০ বলে ৬৭ রান করে আউট হলেন শ্রেয়াস আয়ার। তখন দিল্লির জিততে দরকার ছিল ১৫ বলে ৫ রান।

তার মধ্যেই কো‌নো রান না করে আউট হয়ে যান ক্রিস মরিস। ১৮ রান করে আউট হয়ে যান পন্থ। ১৮.৫ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৫২ রান তুলে নিলো দিল্লি। চার উইকেটে হারতে হল বেঙ্গালুরুকে।

বেঙ্গালুরু : পার্থিব প্যাটেল, বিরাট কোহলি, এবি দি ভিলিয়ার্স, মার্কাস স্তইনিস, মইন আআলি, অক্ষদীপ নাথ, পবন নেগি, টিম সাউদি, নভদীপ সাইনি, যুজবেন্দ্র চাহাল, মোহাম্মদ সিরাজ।

দিল্লি : পৃথ্বী শ, শিখর ধাওয়ান, শ্রেয়াস আয়ার, ঋষভ পন্থ, রাহুল তেওয়াটিয়া, কলিন ইনগ্রাম, ক্রিস মরিস, অক্ষর প্যাটেল, কাগিসো রাবাডা, ইশান্ত শর্মা, সন্দীপ লামিচানে।


আরো সংবাদ

অর্থবছরের প্রথম মাসে রাজস্ব আদায়ে ধস চার পুলিশ ও তিন সাক্ষীর সাত দিনের রিমান্ড আদেশ ব্যাঙ্গালুরুতে মহানবী সা:কে অবমাননার প্রতিবাদে বিক্ষোভ পুলিশের গুলিতে নিহত ৩ সাত মেগা প্রকল্পে ২৭ হাজার কোটি টাকা দিচ্ছে জাপান সাড়ে চার মাস পর হাইকোর্টে নিয়মিত বিচার কার্যক্রম শুরু দেশে মৃতের সংখ্যা সাড়ে তিন হাজার ছাড়াল রাশিয়ার ভ্যাকসিনের কার্যকারিতায় সংশয় কাতার থেকে ফিরেছেন ৪১৩ বাংলাদেশী বৈরুত বিস্ফোরণের পর রাসায়নিক পণ্য নিয়ে নড়েচড়ে বসেছে চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ বুলেটিন বন্ধ হলে স্বাস্থ্যবিধি মানতে অনীহা দেখা দিতে পারে : কাদের করোনা ভ্যাকসিন কেনার সিদ্ধান্ত আগামী সপ্তাহে

সকল