১২ এপ্রিল ২০২১
`

বেহাত হওয়া তথ্য নিয়ে মুখ খুলল ফেসবুক

-

সম্প্রতি অনলাইনে ৫৩ কোটির বেশি ফেসবুক ব্যবহারকারীর ব্যক্তিগত তথ্য ও ফোন নম্বর ফাঁস হওয়া নিয়ে অবাক হয়েছেন সবাই। শেষ পর্যন্ত এ নিয়ে মুখ খুলেছে ফেসবুক। প্রতিষ্ঠানটি জানিয়েছে, সেপ্টেম্বর, ২০১৯ এর আগে ঘটেছে ওই ডেটা ফাঁসের ঘটনা।
রয়টার্স সাম্প্রতিক এক প্রতিবেদনে উল্লেখ করেছে, সে সময় এক ফিচারের ত্রুটির সুযোগ নিয়েছিল হ্যাকাররা। পরে নিজেদের সমস্যা খুঁজে বের করে সেটির সমাধান করে ফেসবুক। যদিও এখনো অনলাইনে পাবলিক ডেটাবেজেই পাওয়া যাচ্ছে ফেসবুক ব্যবহারকারীদের ফোন নম্বর ও অন্যান্য বিস্তারিত।
ফেসবুক কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, হ্যাকাররা ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বরের আগেই ডেটা হাতিয়ে নিয়েছিল। এ কাজে সামাজিক মাধ্যম সেবাটির ‘সিংক কনট্যাক্টস’ টুলের দুর্বলতার সুযোগ নিয়েছিল তারা। ওই ঘটনায় কেবল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রেই তিন কোটিরও বেশি অ্যাকাউন্ট ক্ষতিগ্রস্ত হয়। ২০১৯ সালের যে টুলটির সুনির্দিষ্ট সমস্যার কারণে তারা ডেটা হাতিয়ে নিতে পেরেছিল, তা আমাদের পদক্ষেপ নেয়ার কারণে আর নেই বলেই ফেসবুকের বিশ্বাস।
আপনার ডেটা ওই ঘটনার শিকার হয়েছিল কি না, সেটিা জানার রাস্তা ফেইসবুক কঠিন থেকে কঠিনতর করে তুলেছে বলে মন্তব্য উঠে এসেছে বিবিসির প্রতিবেদনে। ফিচারের ত্রুটি ওই সময়েই সারিয়ে টুলটি পরিবর্তন করে দিয়েছিল ফেসবুক।



আরো সংবাদ