০৪ জুলাই ২০২২, ২০ আষাঢ় ১৪২৯, ৪ জিলহজ ১৪৪৩
`

বিদায় ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার

বিদায় ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার - ছবি : সংগৃহীত

ছয় বছর আগে মাইক্রোসফট এজ বাজারে এনেই ইঙ্গিতটা দিয়েছিল মাইক্রোসফট। টেক জায়ান্ট প্রতিষ্ঠানটি এবার জানিয়ে দিয়েছে তাদের প্রথম ব্রাউজার ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার আর থাকছে না।

বুধবার মাইক্রোসফট কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ইন্টারনেট এক্সপ্লোরারকে আর কোনো ধরনের সহায়তা দেয়া হবে না। এর ফলে অতি মন্থরতার জন্য ব্যবহারকারীদের মনে প্রচুর বিরক্তির উদ্রেক করা ব্রাউজারটির পথ চলা যে ২৭ বছরেই শেষ তা নিশ্চিত হয়ে গেল।

ব্রাউজারটি প্রথম আত্মপ্রকাশ করে ১৯৯৫ সালে। সে বছরই কম্পিউটার প্রস্তুতকারীদের উইন্ডোজ ব্যবহারের সাথে শর্ত হিসেবে ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার ব্যবহারের শর্তও জুড়ে দেয় মাইক্রোসফট। একুশ শতকের শুরু পর্যন্ত ভালোই চলেছে ব্রাউজারটি। তবে কিছু দ্রুত গতির ব্রাউজার চলে আসায় ইন্টারনেট এক্সপ্লোরারের ধীরগতি ব্যবহারকারীদের ধৈর্যের বাধ ভেঙে দিতে শুরু করে। ব্রাউজারটি ব্যবহার করতে গিয়ে ব্যবহারকারীকে প্রায়ই দেখতে হতো, ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার হ্যাজ স্টপড ওয়ার্কিং- বার্তাটি। ফলে দ্রুতই জনপ্রিয়তা হারাতে শুরু করে ব্রাউজারটি। এর ব্যবহার বাধ্যতামূলক রাখায় মাইক্রোসফটের বিরুদ্ধে মামলা করে যুক্তরাষ্ট্র এবং ইউরোপের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান।

২০১৫ সালে দ্রুত গতির মাইক্রোসফট এজ বাজারে নিয়ে আসে মাইক্রোসফট। গত বছর প্রতিষ্ঠানটি জানিয়ে দেয়, উইন্ডোজ ১০-এর প্রায় সব ভার্সন থেকেই ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার সরিয়ে নেয়া হচ্ছে। বুধবার এক ঘোষণায় মাইক্রোসফট চূড়ান্ত ঘোষণাও দিয়ে দিল। এখন থেকে ইন্টারনেট এক্সপ্লোরারকে আর কোনো সহায়তা দেবে না মাইক্রোসফ। সুতরাং বিদায় ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার।
সূত্র : ডয়েচে ভেলে


আরো সংবাদ


premium cement