০৪ মার্চ ২০২১
`

পুরো মাসজুড়েই থাকবে শীতের প্রকোপ


শীতের তীব্রতা বাড়ায় বিপর্যস্ত জনজীবন। শৈত্যপ্রবাহের সাথে রয়েছে মাঝারি থেকে ঘন কুয়াশা। ফলে বাড়ছে ঠাণ্ডাজনিত রোগের প্রকোপ। আবহাওয়ার এই বিরূপ অবস্থা পুরো মাসজুড়েই থাকবে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা।

গত সপ্তাহের মাঝামাঝি থেকে দেশে শৈত্যপ্রবাহ শুরু হয়। ফলে চরম দুর্ভোগে পড়ে দেশের নিম্ন আয়ের মানুষজন। বিশেষ করে উত্তরাঞ্চলের মানুষ বেশি দুর্ভোগে পড়েছে। ওই এলাকায় ঘন কুয়াশা থাকায় এবং সূর্যের দেখা না মেলায় ঘর থেকে বের হতে পারছে না দিনমজুররা।

আবহাওয়াবিদ আবদুল মান্নান বলেন, ‘আগামীকাল সোমবার থেকে মূলত তাপমাত্রা বাড়তে শুরু করবে। তবে যেহেতু কুয়াশা আছে, সূর্যের দেখা মিলছে না, এ জন্য শীতের অনুভূতি থাকবে। আর মঙ্গলবার অথবা বুধবার থেকে শৈত্যপ্রবাহ কাটতে শুরু করবে। জানুয়ারি মাসের পুরোটাই শীতকাল। তাই এই মাসে শৈত্যপ্রবাহ থাকুক আর নাই থাকুক শীত থাকবে।’

গতকালের আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, শ্রীমঙ্গল, পাবনা, বগুড়া, নওগাঁ, দিনাজপুর, চুয়াডাঙ্গা অঞ্চলসহ রংপুর বিভাগের ওপর দিয়ে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকতে পারে। সারা দেশে অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে। মধ্যরাত থেকে সকাল পর্যন্ত দেশের নদী অববাহিকায় মাঝারি থেকে ঘন কুয়াশা পড়তে পারে এবং দেশের অন্যত্র হালকা থেকে মাঝারি কুয়াশা পড়তে পারে।

গতকাল দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল সিলেটের শ্রীমঙ্গলে ৭.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। বিভাগীয় শহরগুলোর মধ্যে ঢাকার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১৩.৬, ময়মনসিংহে ১১.৫, চট্টগ্রামে ১৪, সিলেটে ১২, রাজশাহীতে ১০.৬, রংপুরে ১১, খুলনায় ১২.৬ এবং বরিশালে ১০.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস।



আরো সংবাদ