১৮ মে ২০২২, ০৪ জৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৬ শাওয়াল ১৪৪৩
`

গ্যাস-বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধি জনগণ মানবে না : বামজোট

-

জ্বালানি খাতে সরকারের লাগামহীন চুরি, দুর্নীতি, অব্যবস্থাপনা ও ভুল সিদ্ধান্তের দায়ভার ও শাস্তি জনগণ নিতে পারে না। এমতাবস্থায় গ্যাস-বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধির হঠকারী তৎপরতা জনগণ বরদাস্ত করবে না বলে সরকারকে হুঁশিয়ারি দিয়েছে বামজোটের নেতৃবৃন্দ। গতকাল শুক্রবার বাম গণতান্ত্রিক জোটের কেন্দ্রীয় পরিচালনা পরিষদের নেতৃবৃন্দ এক বিবৃতিতে গ্যাস-বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধির সরকারি নতুন পাঁয়তারা সম্পর্কে তীব্র ক্ষোভ ও নিন্দা জানান। তারা বলেন, সরকারের ভুল নীতি-কৌশলের বোঝা কোনোভাবেই জনগণ বহন করতে পারে না। জনগণ এই ধরনের হঠকারী তৎপরতা বরদাস্ত করবে না। তারা প্রশ্ন করেন জ্বালানি খাতে লাগামহীন চুরি, দুর্নীতি ও অব্যবস্থাপনার জন্য জনগণ কেনো শাস্তি পাবে?
নেতৃবৃন্দ বলেন, ডিজেল ও কেরোসিনের মূল্যবৃদ্ধির বিশাল ধাক্কা মানুষ এখনো সামাল দিয়ে উঠতে পারেনি। এই মূল্য বৃদ্ধির কারণে ইতোমধ্যে সাধারণ মানুষের জীবনকে বিপর্যস্ত করে ফেলেছে। এর মধ্যে আবারো স্বেচ্ছাচারীভাবে গ্যাস-বিদ্যুতের দাম বাড়ালে তা হবে মড়ার উপর খাঁড়ার ঘা। আমলা ও গ্যাস-বিদ্যুৎ কোম্পানিগুলোর এই ধরনের হঠকারী ও ষড়যন্ত্রমূলক তৎপরতা কোনোভাবেই মেনে নেয়া হবে না।
তারা বলেন, আসলে অনিয়ম, অব্যবস্থাপনা, চুরি, দুর্নীতি, ভুল সিদ্ধান্ত পরিবর্তন না করে সরকারী ব্যর্থতার দায় এখন ভোক্তাদের ওপর চাপানো হচ্ছে। আরেক দফা মূল্যবৃদ্ধি করলে কৃষি, শিল্প, পরিবহন, সেবাখাতসহ ব্যক্তি ও পারিবারিক পর্যায়ে জনদুর্ভোগ সব সীমা ছাড়িয়ে যাবে। তারা অবিলম্বে গ্যাস-বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধির হঠকারী তৎপরতা থেকে সরে আসার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানান।
বিবৃতিদাতারা হলেন- বামজোটের সমন্বয়ক বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক, সিপিবির সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম ও সাধারণ সম্পাদক শাহ আলম, বাসদের সাধারণ সম্পাদক খালেকুজ্জামান, গণসংহতি আন্দোলনের জোনায়েদ সাকি, বাসদের (মার্কসবাদী) মানস নন্দি, ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগের সাধারণ সম্পাদক মোশাররফ হোসেন নান্নু, গণতান্ত্রিক বিপ্লবী পার্টির সাধারণ সম্পাদক মোশারেফা মিশু, ওয়ার্কার্স পার্টির (মার্কসবাদী) সাধারণ সম্পাদক ইকবাল কবির জাহিদ ও সমাজতান্ত্রিক আন্দোলনের সভাপতি হামিদুল হক।


আরো সংবাদ


premium cement