০১ ডিসেম্বর ২০২১, ১৬ অগ্রহায়ন ১৪২৮, ২৫ রবিউস সানি ১৪৪৩ হিজরি
`

বর্তমান সরকারের অধীনে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হবে না : ড. মোশাররফ

-

‘বর্তমান সরকারের অধীনে দেশে কোনো অবাধ, সুষ্ঠ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হবে না’ বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সিনিয়র সদস্য মহান মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক ও সাবেক মন্ত্রী ড.খন্দকার মোশাররফ হোসেন।
তিনি বলেন, দেশে একটি অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য নির্বাচনকালীন নির্দলীয় সরকার প্রয়োজন। কিন্তু জনগণের এই যৌক্তিক দাবিকে সরকার গুরুত্ব দিচ্ছে না। তাই তীব্র গণ-আন্দোলনের মাধ্যমে নির্দলীয় সরকার গঠনে বাধ্য করা হবে।
ড. মোশাররফ বলেন, আওয়ামী লীগ সরকারের অধীনে কখনোই কোনো সুষ্ঠু নির্বাচন হয়নি, ভবিষ্যতেও হবে না। তাদের অধীনে আর কোনো নির্বাচন নয়। এখন জনগণের একটাই দাবি- এই ফ্যাসিস্ট সরকারকে গণ-আন্দোলনের মাধ্যমে বিদায় করতে হবে। নির্দলীয় সরকার গঠন করতে হবে। সরকার হঠানোর এক দফার এই আন্দোলনের বিকল্প নেই। তিনি গতকাল শুক্রবার কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলা নিজ বাসভবনে উপজেলা যুবদলের নবগঠিত আহ্বায়ক কমিটির পরিচিতি ও মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তৃতাকালে এইসব কথা বলেন।
ড. মোশাররফ বলেন, বর্তমানে দেশে স্থানীয় সরকার নির্বাচনের নামে জনগণের সাথে প্রহসন করছে। নির্বাচনে বিএনপিসহ বিরোধী দল অংশ নেয়নি। সরকার দলীয় প্রার্থীরা ভোটের জন্য জনগণের কাছে যাচ্ছে না। তারা ছুটছে নৌকার পেছনে। কারণ আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা ভালো করেই জানে, নৌকা প্রতীক পাওয়া মানেই নির্বাচনে নিশ্চিত বিজয়ী হওয়া।
ড. মোশাররফ বলেন, বর্তমান সরকারের সর্বক্ষেত্রে চরম ব্যর্থতা, অযোগ্যতা, দুর্নীতির জন্য দেশের মানুষ ভালো নেই। দ্রব্যমূল্যের নৈরাজ্যে মধ্যবিত্ত, নি¤œবিত্ত ও খেটে খাওয়া মানুষ বাজার থেকে খালি হাতে ঘরে ফিরছে। জনগণ মানবেতর জীবনযাপন করছে।
তিনি বলেন, দেশে গণতন্ত্র, আইনের শাসন ও মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে হবে। গায়ের জোরের সরকারের পতন ঘটাতে হবে- এই এক দফার আন্দোলনের কোনো বিকল্প নেই। তাদেরকে যত দ্রুত সরানো যাবে, ততই দেশের জন্য মঙ্গল হবে। তৃণমূলের নেতাকর্মীগণ সরকার হঠানোর জন্য কঠোর আন্দোলনে যেতে প্রস্তুত। এই ফ্যাসিস্ট সরকারের পদত্যাগ ও নির্বাচনকালীন নির্দলীয় সরকার গঠনে বাধ্য করতে গণ-আন্দোলনে অংশ নেয়ার জন্য ড. মোশাররফ দলীয় নেতাকর্মীসহ সর্বস্তরের জনগণের প্রতি উদাত্ত আহ্বান জানান। সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ড.খন্দকার মারুফ হোসেন।
দাউদকান্দি উপজেলা যুবদলের আহ্বায়ক মো: শাহ আলম সরকারের সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব মো: রোমান খন্দকারের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সভায় উপস্থিত ছিলেন পৌর বিএনপির সভাপতি নূর মোহাম্মদ সেলিম সরকার, সাধারণ সম্পাদক নুরুল আমিন নাঈম সরকার, কুমিল্লা উত্তর জেলা যুবদলের সভাপতি ভিপি শাহাবুদ্দিন ভুইয়া, সাধারণ সম্পাদক ভিপি রেজাউল করিম শাহীন, সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট তৌহিদুল আলম, পৌর বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক কাউসার আলম সরকার, খন্দকার বিল্লাল হোসেন সুমন, পৌর যুবদলের আহ্বায়ক শরীফ চৌধুরী, সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক মহিউদ্দিন তালুকদার প্রমুখ। বিজ্ঞপ্তি।



আরো সংবাদ