০৫ ডিসেম্বর ২০২০

বাংলা সাহিত্যের অন্যতম মূলভিত্তি নজিবর রহমান প্রফেসর ড. আব্দুল খালেক

-

বাংলা সাহিত্যের অমর কথাশিল্পী মোহাম্মদ নজিবর রহমান সাহিত্যরতেœর ৯৬তম মৃত্যুবার্ষিকী পালন উপলক্ষে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি রাজশাহী বিশ^বিদ্যালয়ের সাবেক ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. আব্দুল খালেক বলেন, বাংলা সাহিত্য, সংস্কৃতি ও ঐতিহ্যের যারা মূল ভিত্তি ছিলেন তাদের মধ্যে মোহাম্মদ নজিবর রহমান অন্যতম। গত রোববার রাতে ‘নজিবর রহমান সাহিত্যরতœ ফাউন্ডেশনের’ উদ্যোগে আয়োজিত ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় ড. আব্দুল খালেক আরো বলেন, তিনি মুসলিম কথাসাহিত্যিকদের মধ্যে প্রথম এবং সর্বাধিক জনপ্রিয়। শিক্ষা, সাহিত্য, সমাজসেবা ইত্যাদি বিভিন্নভাবে তিনি অধঃপতিত জাতির উন্নয়নে প্রাণপণ চেষ্টা করে গেছেন। আমরা তার যথাযথ মূল্যায়ন করিনি। তার নামে ফাউন্ডেশন গঠিত হওয়ায় আমি অত্যন্ত খুশি। ফাউন্ডেশনের সব কাজে সহযোগিতা দিতে আমি আগ্রহী। তিনি ভবিষ্যতে শাহজাদপুর ‘রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে’ নজিবর রহমান হল প্রতিষ্ঠাসহ তার নামে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান গঠন ও রাস্তার নামকরণের দাবি জানান।
ফাউন্ডেশনের সভাপতি অধ্যাপক মুহম্মদ মতিউর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন অধ্যাপক ড. শেখ রেজাউল করিম, বাংলা বিভাগ, ইসলামী বিশ^বিদ্যালয়, কুষ্টিয়া ও কলকাতার বিশিষ্ট সাংবাদিক আবু রায়হান। আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন ফাউন্ডেশনের সহসভাপতি মুহাম্মদ আব্দুল হান্নান, ইতিহাসবিদ, লেখক ও গবেষক মোহাম্মদ আশরাফুল ইসলাম, নর্দান ইউনিভার্সিটির সহকারী অধ্যাপক মোহাম্মদ জসিমউদ্দিন, লেখকের নাতি ও ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট গোলাম হাসনায়েন। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন ইঞ্জিনিয়ার জাহাঙ্গীর আলম বিপুল।
সভাপতির ভাষণে অধ্যাপক মুহম্মদ মতিউর রহমান বলেন, নজিবর রহমান মুসলিম বাংলা কথাসাহিত্যের পথিকৃৎ। অথচ তার যথাযথ মূল্যায়ন হয়নি। এ জন্য ২০১৫ সালে তার নামে ফাউন্ডেশন গঠন করে আমরা প্রতি বছর তার জন্ম ও মৃত্যু দিবস পালন, তার উপর গ্রন্থ রচনা, তার রচনাবলী প্রকাশ, তার নামে পত্রিকা প্রকাশ ও বিভিন্নভাবে তার জীবন ও সাহিত্য নিয়ে চর্চা অব্যাহত রেখেছি। তিনি একাজে সবাইকে সহযোগিতা দেয়ার আহ্বান জানান। বিজ্ঞপ্তি।


আরো সংবাদ

বড়শিতে ধরা পড়ল ২০ কেজির ডলফিন! বিজ্ঞানীদের মধ্যে আশা জাগাচ্ছে কোভিড-১৯ টিকা কাতারের সাথে বিরোধ নিষ্পত্তিতে ৪ আরব দেশের শীঘ্রই চুক্তি সিরাজদিখানে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে মন্দিরের প্রতিমা ভাংচুর খাদ্য ও পুষ্টি নিরাপত্তা নিশ্চিতে মাটির সজীবতা-গুণাগুণ বজায় রাখতে হবে : কৃষিমন্ত্রী আরো ৫০০ আফ্রিকান ইহুদি নিয়ে আসা হলো ইসরাইলে বাইডেনের প্রধান স্বাস্থ্য উপদেষ্টা হওয়ার প্রস্তাব গ্রহণ করলেন ফাউসি স্বৈরাচার পতন দিবস উপলক্ষে মিয়া গোলাম পরওয়ারের বিবৃতি টিকা নিলে নিজে নিরাপদ, অন্যের সুরক্ষা অনিশ্চিত! জানাল ফাইজার ভারতে তৈরি টিকা নেয়ার পরেই করোনাক্রান্ত হরিয়ানার স্বাস্থ্যমন্ত্রী মাছ চুরির মামলায় জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার জেলহাজতে

সকল

মানুষের মতো দেখলেও তাকে যে কারণে জঙ্গলে ফল-ঘাস খেয়ে থাকতে হয় (১০৬৬২)বায়তুল মোকাররমের সামনে ভাস্কর্যবিরোধীদের মিছিলে লাঠিচার্জ (৯২৬৬)ইরানি বিজ্ঞানী হত্যাকাণ্ডের পর এই প্রথম মুখ খুললেন বাইডেন (৯১৬১)রাজধানীতে সমাবেশের অনুমতি পায়নি সম্মিলিত ইসলামী দলগুলো (৭৪৬২)ভাস্কর্য, মহাকালের প্রেক্ষাপট (৭০৯১)কোনো মুসলিম হিন্দু নারীকে বিয়ে করতে পারে কিনা (৬৭৯৭)নাগর্নো-কারাবাখে জয় পেতে কত সৈন্য হারাতে হলো আজারবাইজানকে? (৬৭৯২)আমারও একটি ধর্ম আছে (৬২৮৯)নতুন পরমাণু কেন্দ্রে জ্বালানী ঢোকানোর কাজ শুরু করেছে পাকিস্তান (৫৫৪৩)ইরানের পরমাণু কর্মসূচির রিপোর্ট ফাঁসের নিন্দা রাশিয়ার (৫১৯২)