২৮ নভেম্বর ২০২২, ১৩ অগ্রহায়ন ১৪২৯, ৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরি
`

সামিট টেকনোপলিসে বায়োটেক খাতে ওরিক্সের বিনিয়োগ

-

চীনের ওরিক্স বায়োটেক হোল্ডিংসের অঙ্গপ্রতিষ্ঠান ওরিক্স বায়োটেক লিমিটেড বাংলাদেশে বায়োটেক খাতে ৩০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের একটি বিনিয়োগের জন্য সামিট টেকনোপলিস এবং বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষের সঙ্গে একটি ত্রিপক্ষীয় চুক্তি সাক্ষর করেছে। বাংলাদেশে প্রথম বায়ো টেকনোলজিবিষয়ক বিনিয়োগ হিসেবে ওরিক্স তাদের প্লাজমা বিশ্লেষণ প্ল্যান্ট স্থাপন করবে সামিট টেকনোপলিসের ব্লক-০২-এ। প্ল্যান্টটি প্লাজমা ডেরিভেটিভস উৎপাদন করবে, যা জীবন রক্ষাকারী ওষুধ হিসেবে বিবেচিত হবে। কোভিড-১৯-এর সম্ভাব্য চিকিৎসায় প্লাজমার চাহিদা থাকায় এটি বাংলাদেশের স্বাস্থ্য গবেষণা ও সেবা খাতগুলোর জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ এবং সময়োপযোগী বিনিয়োগ। আশা করা হচ্ছে, এই প্রকল্পে দুই হাজার দক্ষ বিজ্ঞান স্নাতকের কর্মসংস্থানের সৃষ্টি হবে। এ ছাড়া এখানে অ্যালবুমিন (অষনঁসরহ), ইমিউনোগ্লোবিন (ওসসঁহড়মষড়নঁষরহ), কোয়াগুলেশন ফ্যাক্টর ৮ (ঈড়ধমঁষধঃরড়হ ভধপঃড়ৎ ঠওওও) ইত্যাদির মতো থেরাপিউটিকস উৎপাদন শুরু হবে।
সামিট গ্রুপের চেয়ারম্যান মুহাম্মদ আজিজ খান বলেন, ‘সামিট টেকনোপলিসের বরাদ্দকৃত ২৫ একর জমি এবং ভবনে দেশের প্রথম এবং বৃহত্তম বায়োটেক শিল্প খাতে প্রায় ৩০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের এই বিনিয়োগ কার্যকর করতে পেরে আমরা অত্যন্ত আনন্দিত। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনের বর্ণিল বছরে এটি অত্যন্ত সন্তোষজনক ব্যাপার যে, এই প্লাজমা ফ্রাকশানেশন প্ল্যান্টটি বাংলাদেশের উন্নয়নে নতুন দিগন্ত উন্মোচন করবে।’
ওই চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে (অনলাইনে) উপস্থিত ছিলেনÑ বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ এবং আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, আইসিটি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলম পিএএ, বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (সচিব) হোসনে আরা বেগম এনডিসি ।
এ ছাড়া অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি সংযুক্ত হনÑ সামিট গ্রুপের চেয়ারম্যান মুহাম্মদ আজিজ খান, ভাইস চেয়ারম্যান লতিফ খান, ফরিদ খান, জাফর উম্মিদ খান, সামিট গ্রুপের পরিচালক আয়েশা আজিজ খান, আজিজা আজিজ খান, ফাদিয়া খান, সালমান খানসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এবং চায়না থেকে যুক্ত হন ডেভিড বো এবং তার সহকর্মীরা। বিজ্ঞপ্তি।


আরো সংবাদ


premium cement