১৬ আগস্ট ২০২০

করোনার পর প্রাথমিকে আরো ৪০ হাজার শিক্ষক নিয়োগ

২৬ হাজার প্রাক-প্রাথমিক ও ১৫ হাজার সহকারী
-
24tkt

করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোর জন্য আরো ৪০ হাজার শিক্ষক নিয়োগের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এর মধ্যে সারা দেশের ২৬ হাজার প্রাক-প্রাথমিক ও ১৫ হাজার সহকারী মিলে মোট ৪০ হাজার শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে। বিদ্যমান করোনা সঙ্কট কেটে গেলেই নিয়োগ কার্যক্রম শুরু হবে। সংশ্লিষ্ট সূত্র এ তথ্য জানিয়েছে। সূত্র মতে, প্রাক-প্রাথমিকে প্রায় ২৬ হাজার শিক্ষকের পদ সৃষ্টি করা হয়েছে। আর স্বাভাবিকভাবেই প্রায় ১৫ হাজারের মতো শিক্ষক পদ শূন্য রয়েছে। এসব পদে একই সাথে নিয়োগ দেয়া হবে।
এ বিষয়ে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের (ডিপিই) মহাপরিচালক মো: ফসিউল্লাহ জানান, মাত্র কিছু দিন আগে আমরা প্রাথমিকের জন্য ১৬ হাজার শিক্ষক নিয়োগ দিয়েছি। যদিও মামলা জটিলতার কারণে ওই নিয়োগ প্রদানে কিছুটা সময় অপচয় হয়েছে। তবে এখন সবকিছু ঠিক হয়ে গেছে। মামলার জটিলতাও কেটে গেছে। কিন্তু এরপরেও শিক্ষক সঙ্কট এখনো রয়েছে। এ ছাড়া প্রাথমিকের জন্য নতুন কিছু পদ সৃষ্টি হয়েছে। সব মিলিয়ে সব পদেই নতুন করে শিক্ষক নিয়োগের নীতিগত সিদ্ধান্ত হয়েছে। তবে করোনা পরিস্থিতির কারণে এখনি আমরা নিয়োগ কার্যক্রম শুরু করতে পারছি না।
ডিপিইর ডিজি আরো জানান, বর্তমানে সারা দেশে প্রাক-প্রাথমিক স্তরে ২৬ হাজার শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে। একই সাথে দেশের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়েও প্রায় ১৫ হাজার সহকারী শিক্ষকের পদ শূন্য। এসব বিদ্যালয়ে নতুন করে শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে। সব মিলিয়ে একত্রে ৪০ হাজার শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু করবে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর।
ডিপিইর অন্য একটি সূত্র জানায়, একই সাথে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে ৪০ হাজারের মতো শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হলেও এর মধ্যে ২৬ হাজার শিক্ষক যারা প্রাক-প্রাথমিকের জন্য চূড়ান্তভাবে নির্বাচিত হবেন তাদের আলাদাভাবে প্রশিক্ষণ দেয়া হবে। এ দিকে শিক্ষক নিয়োগের সাথে যেহেতু অনেক ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান সম্পৃক্ত তাই করোনার এই ঝুঁকির মধ্যে এখনি নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হচ্ছে না। তবে করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ার পরেই এই নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হতে পারে।

 


আরো সংবাদ